Home গানের খবর

লিন্‌কিন পার্ক লিজেন্ড চেষ্টারের শেষযাত্রা

SHARE

অগনিত ভক্তের ভালবাসায় সিক্ত চেষ্টার বেনিংটন সবার মন কে শূন্য করে একেবারে বিদায় নিলেন, তাঁর শেষযাত্রার দিনে উপস্থিত হওয়ার সুযোগ পেয়েছিলেন মাত্র শ–দুয়েক লোক। ঘনিষ্ঠ বন্ধু ও স্বজনদের উপস্থিতিতে শেষবিদায় জানানো হয় এই লিজেন্ডকে ।

কৃতজ্ঞতাঃ- ব্যাকগ্রিড

গত শনিবার শেষকৃত্য সম্পন্ন হলো জনপ্রিয় গানের দল লিনকিন পার্কের ভোকাল ও দলপ্রধান চেস্টার বেনিংটনের। যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ায় পালোস ভার্দেসে নিজের বাড়ির কাছে একটি বোটানিক গার্ডেনে তাঁর শেষকৃত্যের আয়োজন করা হয়। গান গেয়ে শ্রদ্ধা জানানোর জন্য করা হয়েছিল একটি মঞ্চ। রাখা ছিল ড্রামস ও অন্যান্য বাদ্যযন্ত্র।

চেস্টারের ব্যান্ডের সদস্য, কাছের বন্ধু ও আত্মীয়রা হাজির হয়েছিলেন সেখানে। তাঁদের প্রত্যেকের কবজিতে ছিল চেস্টারের নাম ছাপা হলুদ ব্যান্ড এবং কনসার্টের ভিআইপি পাসের মতো একটি প্রবেশ পাস। এসেছিলেন লিনকিন পার্ক, অব মাইস অ্যান্ড মেন রক, চেস্টারের গড়া ব্যান্ড ডেড বাই সানরাইজ এবং আরও অনেক নামী গানের দলের সদস্যরা। শোকবার্তার খাতায় সবাই চেস্টারের জন্য লিখেছেন শেষ শুভেচ্ছাবার্তা ।

চেস্টারের প্রয়াত বন্ধু ক্রিস কর্নেলের শাশুড়ি টনি কারাইয়ানিস লেখেন, ‘আর কোনো প্রিয়জনকে যেতে দিতে চাই না, কখনো না। চেস্টার ও তালিন্দা (চেস্টারের স্ত্রী) সব সময় আমার পাশে ছিল, আজ আমি চেস্টারকে ছেড়ে যাই কীভাবে! দুজনকেই (ক্রিস ও চেস্টার) কেড়ে নিয়ে ঈশ্বর বড্ড অবিচার করলেন। যন্ত্রণা দ্বিগুণ করে দিলেন। ভাবা যায় না, এটা ভাবাই যায় না। নিষ্ঠুর শনিবার।’

চেস্টারের মৃত্যুতে শোকাহত দেশ, বিদেশের লাখো লাখো ভক্ত । তার মৃত্যুতে উত্তর আমেরিকা ট্যুর বাতিল করেছে লিনকিন পার্ক। দলনেতার বিদায়ের কদিন আগেই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে একটি বিবৃতি দিয়েছে দলটি। গত ২০ জুলাই সকাল নয়টার দিকে নিজের শোবার ঘরে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায় চেস্টার বেনিংটনকে। সুত্র মতে, ব্যক্তিগত ডিপ্রেশন সাত বছর বয়সে চেষ্টারের নির্যাতিত হওয়া, চেস্টারের খুব কাছের বন্ধু ক্রিস কর্নেলের আত্মহত্যা ও দশ বছর ধরে মাদকের বিরুদ্ধে নিজে যুদ্ধ করে না পারাকেই অনেকে তার আত্মহত্যার কারন বলে ধারনা করেছেন ।
সূত্র: নিউইয়র্ক ডেইলি নিউজ, ব্লাববারমাউথ।