SHARE
Picture Credit- bdtoday.com

সিলেটের ঐতিহ্যবাহী শীতলপাটিকে বিশ্ব সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য হিসেবে স্বীকৃতি দেয়ার জন্য মনোনীত করেছে ইউনেস্কো। ইউনেস্কোর বিশ্ব ঐতিহ্য কমিটি বিভিন্ন দেশের ৩৫টি ঐতিহ্যের সঙ্গে শীতলপাটিকেও এ মনোনয় দেয়।

আজ বুধবার নির্বস্তুক সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য হিসেবে শীতলপাটির স্বীকৃতি লাভের বিষয়টি প্রায় নিশ্চিত বলে মনে করেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর।

এর আগে জামদানি, বাউলগান, মঙ্গল শোভাযাত্রাও একই স্বীকৃতি পেয়েছে। এ ছাড়া গত অক্টোবরের শেষ সপ্তাহে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণকে বিশ্বপ্রামাণ্য ঐতিহ্যের স্বীকৃতি দেয় জাতিসংঘের এই সংস্থাটি।

সংস্কৃতিমন্ত্রী গতকাল সন্ধ্যায় বলেছেন, শীতলপাটির স্বীকৃতির বিষয়টি প্রায় চূড়ান্ত।  এ স্বীকৃতি উদ্‌যাপন করতে বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘর আয়োজন করেছে শীতলপাটির বিশেষ প্রদর্শনীর।

জাদুঘরের নলিনীকান্ত ভট্টশালী গ্যালারিতে এই প্রদর্শনীর উদ্বোধন করা হয়। দক্ষিণ কোরিয়ায় চলমান বিশ্ব ঐতিহ্য সম্মেলনে জাতীয় জাদুঘরের সচিব মোহাম্মদ শওকত নবীর নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল এ সম্মেলনে অংশ নিয়েছেন।

প্রতিনিধি দলে রয়েছেন সিলেট অঞ্চলের দুজন বিখ্যাত পাটিকর গীতেশচন্দ্র ও হরেন্দ্রকুমার দাশ। সম্মেলনস্থলে তারা শীতলপাটি তৈরির বুননশৈলী তুলে ধরেন।