২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির নীতিমালা চূড়ান্ত করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। আগামী ১০ মে থেকে ভর্তির আবেদন নেওয়া শুরু হবে। আর শেষ হবে ২৫ জুন। এবার কেবল অনলাইনে ভর্তির আবেদন গ্রহণ করা হবে। বৃহস্পতিবার শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে অনুষ্ঠিত সভায় ভর্তির এ নীতিমালা চূড়ান্ত করা হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি।

খসড়া নীতিমালায় দেখা গেছে, এ বছর একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির ক্ষেত্রে মুক্তিযোদ্ধা, প্রবাসী ও বিকেএসপি কোটা বহাল রেখে অন্যান্য কোটা বাতিল করা হয়েছে। ভর্তি প্রক্রিয়ায় জটিলতা ও ব্যয় কমাতে এসএমএসের মাধ্যমে আবেদন প্রক্রিয়া বাতিল করে শুধু অনলাইনে আবেদন করার প্রস্তাব করা হয়েছে। ভর্তি নিশ্চয়ন ফি ১৩০ টাকার বদলে ১৩৫ টাকা নির্ধারণ করতে প্রস্তাব করা হয়েছে। অর্থাৎ চূড়ান্ত তালিকায় নাম আসলে একজন শিক্ষার্থীকে এ পরিমাণ টাকা দিতে হবে।

৫ শতাংশ মুক্তিযোদ্ধার কোটা ছাড়া এবার অন্য কোটা থাকছে না। তবে প্রতিবন্ধী, বিকেএসপির শিক্ষার্থী, খেলাধুলা ও সাংস্কৃতিক কার্যক্রমে অসামান্য পারফরম্যান্স (পুরস্কারপ্রাপ্ত) থাকা শিক্ষার্থী এবং প্রবাসীর সন্তানদের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

তবে এ সুবিধা পেতে তাদের সনাতন (ম্যানুয়ালি) পদ্ধতিতে সরাসরি শিক্ষা বোর্ডে আবেদন করতে হবে। কলেজে ভর্তির ন্যূনতম যোগ্যতা থাকা এবং আবেদনকারীর অন্যান্য বিষয় যাচাই-বাছাই সাপেক্ষে তাদের ভর্তির ব্যবস্থা করা হবে।

প্রসঙ্গত, এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল প্রকাশের আগেই এবার ভর্তির এ নীতিমালা চূড়ান্ত করা হলো।