ক্যানসার আক্রান্ত অভিনেতা আবদুল কাদেরের জন্য আরেকটি দুঃসংবাদ। কোভিট ১৯ পজিটিভ শনাক্ত হয়েছে তাঁর। বর্তমানে তিনি ঢাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালের করোনা ইউনিটে চিকিৎসাধীন। অভিনেতার চিকিৎসা নিয়ে চিন্তিত হয়ে পড়েছে তাঁর পরিবার।

১৫ ডিসেম্বর চেন্নাইয়ের একটি হাসপাতালে এই অভিনেতার ক্যানসার ধরা পড়ে। শারীরিক অবস্থা ভালো না থাকায় সেখানকার চিকিৎসকেরা তাঁকে কেমোথেরাপি দিতে পারেননি।

গতকাল রোববার সন্ধ্যায় অভিনেতাকে ঢাকায় এনে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানকার পরীক্ষায় আজ তাঁর করোনা শনাক্ত হয়। আজ সোমবার সকালে আবদুল কাদেরের করোনার নমুনা সংগ্রহ করেন চিকিৎসকেরা।

সন্ধ্যায় চিকিৎসকেরা কাদেরের পরিবারকে জানান, কাদের করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। বিষয়টি জানার পর ভেঙে পড়েছেন তাঁর পরিবারের সদস্যরা।

আবদুল কাদেরের সঙ্গে স্ত্রী, ছেলে, পুত্রবধূ এবং দুই নাতি চেন্নাইয়ে ছিলেন। সবারই কোভিড পরীক্ষা করতে দেওয়া হয়েছে বলেও জানিয়েছেন জাহিদা ইসলাম জেমি।

কান্নাজড়িত কণ্ঠে আবদুল কাদেরের পুত্রবধূ জাহিদা ইসলাম জেমি বলেন, ‘মানসিকভাবে ভেঙে পড়ছি। আমাদের জন্য দোয়া করবেন। আমাদের পরিকল্পনা অনুযায়ী চিকিৎসা করাতে পারব কিনা সে ব্যাপারেও সন্দেহ থেকে যাচ্ছে। ভেবেছিলাম, দেশে চিকিৎসা নিলে উনি একটু সুস্থ হয়ে উঠবেন। আমাদের জন্য দোয়া করবেন।’

প্যানক্রিসের ক্যানসারে আক্রান্ত অভিনেতা আবদুল কাদের। ৮ ডিসেম্বর তাকে চেন্নাই নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। ১৮ ডিসেম্বর দেশে ফেরার কথা ছিল। কিন্তু শারীরিক অবস্থার উন্নতি না হওয়ায় সম্ভব হয়নি। ২০ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় ঢাকায় এসে পৌঁছেছেন তিনি।