CORONAVIRUS

শরীরে করোনা নিয়ে শনিবার রাতে মসজিদে তারাবির নামাজে ইমামতি করায় মাগুরার শালিখা ও তার পার্শ্ববর্তি যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলা দু’টি গ্রাম লকডাউন করা হয়েছে। একই সাথে লক ডাউন করা হয়েছে শালিখা-বাঘার পাড়ার স্থানীয় একটি সড়ক।  বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মাগুরা শালিখা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ তানভীর রহমান।

ইউএনও বলেন, পাশাপাশি ওই মসজিদে যারা নামাজ পড়েছেন তাদের নমুন সংগ্রহ করে পরীক্ষার ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

তিনি বলেন, ইমামসহ ১৩ জন নিয়ে তারাবি শুরু হলেও মসজিদটিতে ২০ থেকে ২৫ জন নামাজ পড়েছেন বলে জানতে পেরেছি। এ বিষয়ে তালিকা করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। স্বাস্থ্য ঝুঁকি বিবেচনায় নামাজে অংশ গ্রহণকারীদের সঠিক তালিকা করা ও সে অনুযায়ী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার বিষয়টি খুবই গুরুত্ব দিচ্ছি আমরা।

জানা যায়, শনিবার শালিখার আদাডাঙ্গা গ্রামের একটি মসজিদে এই ব্যক্তি তারাবি নামাজে ইমামতি করেন। পরদিন রোববার সকালে তার করোনাভাইরাস আক্রান্ত হওয়ার খবর আসে।