যুক্তরাজ্যে ফাইজারের টিকাদান শুরু আজ

0
25

যুক্তরাজ্যে সরকারিভাবে জনসাধারণের মধ্যে ফাইজারের টিকা দেওয়া শুরু হচ্ছে মঙ্গলবার থেকে। দেশটির স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা বলছেন, ফাইজার এবং বায়োএনটেকের এই টিকা তাদের করোনভাইরাস নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করবে।

বিশ্বের প্রথম দেশ হিসেবে ফাইজার ও বায়োএনটেক উদ্ভাবিত করোনাভাইরাসের টিকার প্রয়োগ শুরু করবে যুক্তরাজ্য। খবর বিবিসির

অগ্রাধিকার ভিত্তিতে দেশটিতে এই টিকা পাওয়ার ক্ষেত্রে প্রথম সারিতে আছেন স্বাস্থ্য কর্মীরা। যাদের সম্মুখসারির যোদ্ধা হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে। এ ছাড়া ৮০ বছরের বেশি বয়সী প্রবীণ ও কেয়ার হোমের কর্মীরাও এ টিকা পাবেন। কয়েক হাজার স্বেচ্ছাসেবক ও সামরিক বাহিনীর সদস্যদের সহায়তায় স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মীরা মঙ্গলবার সকাল থেকে টিকাদান শুরু করবেন।

প্রথম ধাপে প্রায় চার লাখ মানুষকে এ টিকা দেওয়া হবে। এ জন্য দেশটির সরকার চার কোটি টিকার অর্ডার করেছে।

টিকা প্রয়োগের প্রথম দিনটিকে ‘ভি-ডে’ হিসেবে আখ্যা দিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী ম্যাট হ্যানকক।

দেশটির প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন বলেছেন, করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই করতে যুক্তরাজ্য আজ বিশাল পদক্ষেপ নিয়েছে।

তিনি জনগণদের সতর্ক করে বলেন, করোনার টিকাদান কর্মসূচিতে সময় লাগবে। শীতকাল মাথায় রেখে আপনাদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে।

গত সপ্তাহে বিশ্বের প্রথম দেশ হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রের ফাইজার ও জার্মানির বায়োএনটেক এর যৌথভাবে উদ্ভাবিত করোনার টিকা ব্যবহারের অনুমোদন দেয় যুক্তরাজ্য।

উৎপাদকদের দাবি, পরীক্ষার চূড়ান্ত ধাপে টিকাটি মানুষকে করোনা সংক্রমণ থেকে ৯৫ শতাংশ রক্ষা করতে সক্ষম হয়েছে।