করোনা প্রতিরোধে জাপানি ওষুধ কার্যকর: চীন

0
1682
Japan produced Avigan for coronavirus

সম্প্রতি জাপানের তৈরি করা ফাভিপিরাভির (Coronavirus vaccine Favipiravir) বা অ্যাভিগান (Coronavirus vaccine Avigan) নামে একটি ইনফ্লুয়েঞ্জা ওষুধ চিনে করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে কার্যকর ভূমিকা পালন করেছে । এই তিন লক্ষণে বুঝা যাবে আপনি করোনা আক্রান্ত কিনা।

জাপানের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম এনএইচকে জানিয়েছে, জাপানের ফুজিফিল্ম তোয়ামা কেমিক্যাল ফাভিপিরাভির (Coronavirus vaccine Favipiravir) বা অ্যাভিগান (Coronavirus vaccine Avigan) নামে একটি অ্যান্টিভাইরাল ড্রাগ তৈরী করে যা উহান ও শেনজেন অঞ্চলের অন্তত ৩৪০ জন করোনা আক্রান্ত রোগীর শরীরে প্রয়োগ করে কার্যকর ফল পেয়েছে বলে জানা যায় ।

চীনের সরকারী গবেষকরা বলছেন যে, অ্যাভিগান নামে তারা জাপানের তৈরী এই ভ্যাকসিনটি করোনভাইরাস সংক্রামিত রোগীদের চিকিত্সায় কার্যকর ফল পেয়েছেন।

বেইজিংয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে চীনের জাতীয় বায়োটেকনোলজি ডেভেলপমেন্ট সেন্টারের পরিচালক ঝাং জিনমিন বলেন যে, ওষুধটি নিউমোনিয়াসহ করোনভাইরাস জনিত লক্ষণগুলির জন্য কাজ করে এবং এর কোনও স্পষ্ট পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া নেই।

করোনাভাইরাস সম্পর্কে আরো পড়ুন :

করোনা মহামারীতে এজমা রোগীদের করণীয়

Coronavirus: জেনে নিন কোন হাসপাতালে পাবেন করোনাভাইরাসের চিকিৎসা

আইইডিসিআর (IEDCR) হটলাইন নম্বর, ফেসবুক পেজ, ই–মেইল

টাকার নোটের করোনা থেকে বাঁচার উপায়

Child Vaccine: শিশুদের কোন টিকা কখন দিবেন, কিভাবে দিবেন ?

তিনি বলেন যে, শেনজেনে যাদের এই ভেকসিনটি দেওয়া হয়েছিল তারা চারদিনের মধ্যেই করোনামুক্ত হয়েছেন। বিপরীতে, অন্য ওষুধ ব্যবহারকারীদের সুস্থ হতে সময় লেগেছে প্রায় ১১ দিন।

মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে এই ভ্যাকসিন তৈরি সঙ্গে সংশ্লিষ্টরা বলেছেন, যৌথ উদ্যোগে করোনভাইরাসের ডিএনএ ভ্যাকসিন তৈরির কাজ সম্পন্ন হয়েছে। শিগগিরই প্রাণীর দেহে এই ভাইরাসের পরীক্ষা চালানো হবে।

এই অবস্থায় করোনার ওষুধ পেল জর্ডান, ভারত এবং বাংলাদেশকে করোনার ওষুধ (CoronaVirus Medicine) প্রদান করেছে ডেল্টা ফার্মা। ভারত ও জর্ডান করোনাভাইরাসে আক্রান্ত গুরুতর অসুস্থ রোগীদের ক্ষেত্রে অ্যান্টিভাইরালের পাশাপাশি, ম্যালেরিয়ার ওষুধ ‘হাইড্রোক্সি-ক্লোরোকুইন (Hydroxychloroquine)’ ব্যবহারের অনুমতি পেয়েছে।

জেনে নিন বাংলাদেশে কোন হাসপাতালে পাবেন করোনাভাইরাসের চিকিৎসা। এছাড়া করোনা প্রতিরোধে সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানে (আইইডিসিআর) হটলাইন নম্বর, ফেসবুক পেজ, ই–মেইলের মাধ্যমে যোগাযোগ করা যাবে ।

বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়ে বুধবার পর্যন্ত বিশ্বজুড়ে প্রাণহানির সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৮ হাজার ৯০১ জনে। এখনো পর্যন্ত এই ভাইরাসের কোন ভ্যাকসিন বা টিকা আবিষ্কার হয়নি ।

List of Top 10 World’s Stock Market: Market Trading Hours, Closing Day