করোনাভাইরাস মহামারিতে বিশ্বের অধিকাংশ প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তারাই প্রযুক্তির সাহায্যে বাড়ি থেকে কাজ করছেন। মহামারির প্রেক্ষাপটে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটার জানিয়েছে, কর্মীরা চাইলে ‘আজীবন’ বাড়ি থেকে কাজ করতে পারবেন।

লকডাউনের সময় টুইটার বাড়ি থেকে কাজ করার যে ব্যবস্থা চালু করেছিল, সেটি কার্যকর হওয়ায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

তবে লকডাউন উঠে যাওয়ার পর যখন অফিস খোলা হবে, তখন তারা চাইলে অফিসে এসেও কাজ করতে পারবেন। কাজের জন্য অফিসে আসা বা না আসা গোটা বিষয়টাই কর্মীদের ওপর ছেড়ে দিয়েছে টুইটার। এক্ষেত্রে তারা পূর্ণ স্বাধীনতা ভোগ করতে পারবেন বলে জানা গেছে।

এর আগে, এই মাসের শুরুর দিকে গুগল ও ফেসবুক জানিয়েছে, বছর শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাদের কর্মীরা বাড়ি থেকে কাজ করতে পারবেন।

বাড়ি থেকে কাজ করার ঘোষণায় টুইটার বলেছে: ‘গত কয়েক মাসে এটা প্রমাণিত হয়েছে যে, আমরা বাড়ি থেকেও কাজ করতে পারছি। সুতরাং আমাদের কর্মীরা যদি বাড়ি থেকে কাজ করার মতো দায়িত্ব ও পরিস্থিতিতে থাকে এবং তারা যদি বাড়িতে বসেই আজীবন কাজ করতে চায়, আমরা সেই ব্যবস্থা করবো।’