হাসপাতালে না গিয়েই যেভাবে করোনা জয় করলেন ঢাবি ছাত্র

0
28
CORONAVIRUS

মহামারির শুরুতে ত্রান বিতরণ করতে গিয়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ইশতিয়াক আহমেদ হৃদয়। কিন্তু হাসপাতালেও না গিয়েও মাত্র সাতদিনে করোনাকে জয় করেছেন তিনি। পরে নিজেই সেই তথ্য জানিয়েছেন ঢাবির এই ছাত্র।

ইশতিয়াক আহমেদ হৃদয় বলেন, ‘করোনা মহামারিতে দরিদ্র ও অসহায়দের মাঝে ত্রান বিতরণ করতে গিয়ে নিজেই আক্রান্ত হয়ে পড়ি। করোনায় আক্রান্ত বলে নিশ্চিত হওয়ার পর প্রথমেই সতর্ক করি আমার সংস্পর্শে আসা সবাইকে। এরপর একটি রুমে শুরু করি একা থাকা।’

তিনি বলেন, ‘আমার আশপাশে যারা ছিল তাদের বলে দিয়েছি আপনার কোয়ারেন্টিন মেনে চলুন, কিংবা প্রয়োজন মনে করলে পরীক্ষাও করিয়ে নিতে পারেন।’

সাতদিনে করোনাকে কীভাবে জয় করেছেন সে বিষয়েও জানিয়েছেন ঢাবির এই ছাত্র। তিনি বলেন, ‘এ সময়ে ভিটামিন সি খেয়েছি, গরম পানি দিয়ে গড়গড়া করেছি এবং স্যাভলন পানি দিয়ে গোসল করতাম। শারীরিক ব্যায়াম করতাম নিয়মিত এবং এক দুই ঘণ্টা পরপরই শুধু গরম পানি খেতাম। আমার মনে হয় এটা আমার করোনা দূর করতে খুব ভালো কাজে দিয়েছে। এক সপ্তাহ পরই আমি নেগেটিভে চলে এসেছি।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমার যে জামা কাপড় ছিল সেগুলো ঠিকভাবে ধুয়েছি, রুম প্রতিদিন স্যাভলন পানি দিয়ে ধুয়েছি।’

‘আমার মতে, পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকবেন, গরম পানি অবশ্যই খাবেন। সকাল-দুপুর-রাত এ তিন বেলা গড়গড়া করার চেষ্টা করবেন। আশা রাখা যায় আপনি করোনা পজিটিভ হলেও দ্রুত নেগিটিভ হয়ে যাবে’ যোগ করেন ইশতিয়াক আহমেদ।

করোনা সংক্রমণ থেকে বাঁচতে আপনারা ঘরে থাকুন, এ সময়ে নিজে বাঁচুন অন্যদের বাঁচান বলেও অনুরোধ জানান ঢাবির এই ছাত্র।