করোনাকালের এই দুঃসময়ে দেশের জন্য আরো একটি দুঃসংবাদ। সৌদি আরব ১০ লাখেরও বেশি বাংলাদেশিকে ফেরত পাঠাতে চায়। গতমাসেই দূতাবাসের মাধ্যমে তারা বিষয়টি সরকারকে জানিয়েছে। এজন্য তারা বাংলাদেশ সরকারকে রীতিমতো বাধ্য করছে। তবে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে তাদেরকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, একসঙ্গে এত মানুষ ফেরত আনা সম্ভব নয়।

সৌদি আরবে বাংলাদেশ দূতাবাস গত মাসে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে এমন তথ্য জানিয়েছে। এছাড়া সংযুক্ত আরব আমিরাতও বাংলাদেশী অবৈধ শ্রমিকের পাশাপাশি আসামি ফেরত পাঠাতে চাইছে।

দেশটির সঙ্গে যেহেতু সাজাপ্রাপ্ত আসামি হস্তান্তর বা ট্রান্সফারিং অব সেনটেন্স পারসনবিষয়ক চুক্তি রয়েছে, সেহেতু তাদের বলা হয়েছে আগে বাংলাদেশিদের তালিকা পাঠাতে। নাগরিকত্ব যাচাই-বাছাই করে বাংলাদেশ তাদের ফিরিয়ে আনবে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, ৫ থেকে ১০ লাখ মানুষকে হয়তো এখনই ধরে বিতাড়িত করবে না সৌদি সরকার। তবে আগামী তিন থেকে পাঁচ বছরের মধ্যে বিশালসংখ্যক বাংলাদেশিকে নিজ দেশ থেকে বিতাড়িত করবে দেশটি।