৫০ লাখ পরিবারকে নগদ অর্থের সহায়তা করলেন প্রধানমন্ত্রী

0
14
sheikh-hasina

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, দেশে প্রচুর খাদ্যশস্য উৎপাদন হয়েছে। আল্লাহর রহমতে, অন্তত খাদ্যের কষ্ট হবে না। এছাড়াও আমরা নগদ অর্থের ব্যবস্থা করেছি ।

বৃহস্পতিবার( ১৪ মে) সকালে, গণভবন থেকে দেশের এই দুর্যোগ পরিস্থিতিতে কর্মহীন হয়ে পড়া ৫০ লাখ হতদরিদ্র পরিবারের জন্য আড়াই হাজার করে টাকা নগদ অর্থের সহায়তা কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি।

এই নগদ অর্থ সহায়তার জন্য সরকার ১ হাজার ২৫০ কোটি টাকা বরাদ্দ করেছে। প্রতি পরিবারে চারজন সদস্য ধরা হলে এই নগদ সহায়তায় উপকারভোগী হবে অন্তত দুই কোটি মানুষ।

একইসঙ্গে অনলাইন মোবাইল ব্যাংকিং ব্যবস্থায় ২ লাখ ৯ হাজার ৬৭৪ জন শিক্ষার্থীর মাঝে প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা সহায়তা ট্রাস্ট থেকে উপবৃত্তি বাবদ ১০২ কোটি ৭৪ লাখ ২ হাজার ৬০০ টাকা এবং টিউশন ফি বাবদ ৮ কোটি ৬৬ লাখ ৪১ হাজার টাকা (প্রায়) বিতরন করা হয়।

তিনি বলেন, যুবক শ্রেণীকে যাতে বেকার হয়ে ঘুরে না বেড়াতে হয় সেজন্য কর্মসংস্থান ব্যাংকে আরো ২ হাজার কোটি টাকা আমানত দেওয়া হবে যাতে তারা ব্যাংক থেকে ঋণ নিতে নিয়ে নিজেরা ব্যবসা বাণিজ্য করতে পারবে।

এছাড়াও যারা প্রবাসী, তারাই কিন্তু আমাদের রেমিট্যান্স পাঠায়। কাজেই তাদের কল্যাণ্যে প্রবাসী ক্যলাণ ব্যাংক গড়ে তোলা হয়েছে। সেই ব্যাংকেও আরো টাকা আমরা দিয়ে দেবো। অতিরিক্ত আরো ৫’শ কোটি টাকার তহবিল সেখানে দেয়া হবে।

প্রবাসীদের বিষয়ে শেখ হাসিনা বলেন, ‘প্রবাসীরা আমাদের রেমিট্যান্স পাঠায়। তাদের কল্যাণের জন্য প্রবাসী কল্যাণ নামে আরেকটি বিশেষায়িত ব্যাংক প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। সেখানে আমরা অতিরিক্ত ৫০০ কোটি টাকা দেব। এর আগে ওখানে বর্তমান সরকার প্রায় ৪০০ কোটি টাকা দিয়েছে।

মাদরাসা ও এতিমখানার কষ্টের কথা চিন্তা করে তিনি বলেন, ইতিমধ্যে প্রায় ৬ হাজার ৮৬৫টি কওমি মাদরাসায়, যেখানে এতিমখানা আছে সেখানে আমরা আর্থিক সহায়তা দিয়েছি। দ্বিতীয় পর্যায়ে আরও ৭ হাজার কওমি মাদরাসাকে ঈদের আগে আর্থিক সহায়তা দেওয়া হবে বলে প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন