করোনাভাইরাস সঙ্কটের সাধারণ ছুটি শেষে অফিস খোলার দিন ৩১ মে থেকে গণপরিবহণও সীমিত পরিসরে চলাচল শুরু হবে।

জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন জানান, সীমিত যাত্রী নিয়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে গণপরিবহন চলাচল করতে পারবে। নৌপরিবহন, ট্রেনও চলবে বলে তিনি জানান।

এর আগে বিকালে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন এ তথ্য জানান ৩১ মে’র পর সাধারণ ছুটি আর বাড়ছে না। এ বিষয়ে বৃহস্পতিবার (২৮ মে) প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে বলে নিশ্চিত করেন তিনি। এসময় ১৫ জুন পর্যন্ত স্বাস্থ্যবিধি মেনে ব্যক্তিগত গাড়ি চলাচল করবে বলে জানিয়েছিলেন প্রতিমন্ত্রী। তিনি বলেছিলেন, ছুটি না বাড়লেও চলবে না গণপরিবহণ, রেল ও যাত্রীবাহী নৌযান। তবে বেসরকারি বিমানগুলো নিজ ব্যবস্থাপনায় বিমান চলাচল শুরু করতে পারবে।

দীর্ঘদিন সব কিছু বন্ধ রাখলে অর্থনীতিসহ বেসরকারিখাতগুলো যে ক্ষতির মুখে পড়ছে সে বিষয়টি মনে করিয়ে দেন ফরহাদ। গত মার্চের শেষ সপ্তাহ থেকে গণপরিবহণ বন্ধ রয়েছে। এতে জীবিকার সঙ্কটে পড়া পরিবহণ শ্রমিকরা বিক্ষোভেও নেমেছেন।