সাহেদের বিরুদ্ধে দুদকে মামলা

0
17

করোনা ভাইরাসের টেস্টের ভুয়া রিপোর্ট দেয়া সহ নানা প্রতারণার অভিযোগে গ্রেফতার রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান মো. সাহেদসহ চার জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

এনআরবি ব্যাংকের অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে বুধবার (২২ জুলাই) দুদকের সহকারী পরিচালক মো. সিরাজুল হক বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন।

বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করে দুদকের পরিচালক (জনসংযোগ) প্রণব কুমার ভট্টাচার্য্য জানান, ঢাকার সমন্বিত জেলা কার্যালয়ে দণ্ডবিধির ৪০৯/৪২০/১০৯ ধারাসহ ১৯৪৭ সালের দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫(২) ধারায় মামলাটি দায়ের করা হয়েছে।

মামলার আসামিরা হলেন—রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাহেদ, ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. ইব্রাহিম খলিল, এনআরবি ব্যাংকের এসই ব্যাংকিংয়ের সাবেক প্রিন্সিপাল অফিসার মো. সোহানুর রহমান ও ভাইস প্রেসিডেন্ট ওয়াহিদ বিন আহমেদ।

দুদক সূত্রে জানা গেছে, হাসপাতাল পরিচালনার পূর্ব অভিজ্ঞতা, অন্য ব্যাংকের লেনদেন বা বিনিয়োগের তথ্য যাচাই, ঋণ নিরাপত্তার পর্যাপ্ত জামানত সংগ্রহ না করেই সাহেদকে দুই দফায় ২ কোটি ৪ লাখ ৯০ হাজার ৯৮৭ টাকা ঋণ দেয় ব্যাংকটি। ঋণ নেওয়ার পর এই টাকা আর পরিশোধ করেননি সাহেদ। টাকা পরিশোধ না করায় সুদ এবং অন্যান্য চার্জসহ সাহেদের কাছে ব্যাংকের পাওনা হয়েছে ২ কোটি ৭০ লাখ ৭০ ২১৪ টাকা। তবে ঋণ মঞ্জুরির শর্তানুযায়ী এক কোটি টাকা এফডিআর করেছিলেন তিনি। দুই টার্মে দুই কোটি টাকা ঋণ পাবেন তা নিশ্চিত হওয়ার পরই এই এফডিআর করেন। ব্যাংক কর্তৃপক্ষ টাকা উদ্ধার করতে না পারায় তার এফডিআর থেকে এক কোটি ১৮ লাখ ৮৯ হাজার ৩৪৯ টাকা সমন্বয় করে। বর্তমানে সাহেদের কাছে ব্যাংকটির পাওনা আছে এক কোটি ৫১ লাখ ৮১ হাজার ৩৬৬ টাকা।

দুদক জানায়, চার আসামি পরস্পর যোগসাজশে এই টাকা আত্মসাৎ করেছেন বলে অনুসন্ধানে উঠে এসেছে। টাকা আত্মসাতের প্রমাণ পাওয়ায় তাদের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।