জুলাইয়ে জানা গিয়েছিল ব্রিটিশ সাময়িকী প্রসপেক্টের জরিপে বিশ্বসেরা ৫০ চিন্তাবিদের তালিকায় স্থান পেয়েছেন বাংলাদেশের স্থপতি মেরিনা তাবাসসুম। এবার সেই তালিকার শীর্ষ ১০ জনের মধ্যে তৃতীয় স্থান পেয়েছেন তিনি।

গত ২ সেপ্টেম্বর ভোটাভুটির মাধ্যমে ৫০ থেকে শীর্ষ ১০ চিন্তাবিদ নির্বাচিত করা হয়। এই তালিকায় সবার ওপরে আছেন ভারতের কেরালা অঙ্গরাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী কে কে শৈলজা। এর আগে গত জুলাইয়ে ব্রিটিশ এই সাময়িকী শীর্ষ ৫০ চিন্তাবিদের তালিকা তৈরি করে। সেখান থেকে ভোটাভুটির মাধ্যমে শীর্ষ ১০ জনকে বেছে নেয়া হয়।

এই তালিকায় শীর্ষে আছেন ভারতের দক্ষিণাঞ্চলীয় অঙ্গরাজ্য কেরালার কমিউনিস্টপন্থী নারী স্বাস্থ্যমন্ত্রী কে কে শৈলজা। করোনাভাইরাস মোকাবিলায় সফলতা দেখিয়ে বিশ্বজুড়ে ব্যাপক প্রশংসিত হয়েছেন তিনি। করোনা মোকাবিলায় শৈলজা নেতৃত্বাধীন কেরালা মডেলের প্রশংসা বিশ্বজুড়ে সমাদৃত; বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাও বিভিন্ন সময়ে ভারতের দক্ষিণের এই রাজ্যের করোনা মোকাবিলা কৌশল অন্যদের মেনে চলার পরামর্শ দিয়েছে।

শিক্ষক থেকে রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রীর পদে আসীন রয়েছেন কমিউনিস্টপন্থী শৈলজা। চলতি বছরের জানুয়ারিতে চীনের উহানে যখন এই ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব শুরু হয়, তখন থেকেই তিনি রাজ্যে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পরীক্ষা, শনাক্ত এবং বিচ্ছিন্ন করে রাখার কৌশল মেনে কাজ শুরু করেন।

বাংলাদেশের মেরিনা তাবাসসুমের পর আছেন আফ্রিকান-আমেরিকান দার্শনিক কোরনেল ওয়েস্ট, ব্রাজিলের রাষ্ট্রবিজ্ঞানী ইলোনা জ্যাবো দে কার্ভালহো, ইতিহাসবিদ ওলিভেট ওটেলে, মার্কিন ভূগোলবিদ রুথ উইলসন গিলমোর, বেলজিয়ামের দার্শনিক ফিলিপ্পে ফন প্যারিস, নেদারল্যান্ডসের শিক্ষাবিদ মার্ক পোস্ট এবং পোলিশ-ব্রিটিশ জীববিজ্ঞানী ম্যাগডালিনা জারনিকা গোয়েৎস।