বরগুনার আলোচিত রিফাত শরীফের খুনি সন্ত্রাসী সাব্বির আহম্মেদ নয়ন ওরফে নয়ন বন্ডের সঙ্গে আয়শা সিদ্দিকা মিন্নির বিয়ে হয়েছিল গত বছরের ১৫ অক্টোবর। ওই বিয়ের আট মাসের মাথায় গত মে মাসের শুরুতে নয়নের বন্ধু রিফাত শরীফের সঙ্গে মিন্নির বিয়ে হয়।

সেই বিয়ের দুই মাস না হতেই গত বুধবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে প্রকাশ্যে রিফাত শরীফকে কুপিয়ে হত্যা করে নয়ন বন্ড, তার বন্ধু রিফাত ফরাজীসহ অন্য সহযোগীরা।

এ্যাস মিন্নি নামে ফেসবুক আইডি থেকে ২০১৮ সালের ১৮ অক্টোবর একটি স্ট্যাটাস দেওয়া হয়েছে। সেখানে মিন্নি ঘাতক নয়ন বন্ডকে বিয়ে করার ঘোষণা দিয়ে লিখেছেন, ‘ম্যারিড নয়ন বন্ড’। অপরদিকে, নিরজনা মিন্নি নামে ফেসবুক আইডি থেকে চলতি বছরের ১৬ এপ্রিল উল্লেখ করা হয়েছে, ‘ ম্যারিড রিফাত শরীফ’।

সংশ্লিষ্ট কাজী মো. আনিচুর রহমান ভূঁইয়া বলেন, গত বছরের ১৫ অক্টোবর আসরের নামাজের পর সাব্বির আহম্মেদ নয়নের সঙ্গে আয়শা সিদ্দিকা মিন্নি বিয়ে হয়। সেদিন তারা ১৫-২০ জন বিয়ে পড়াতে আসে।

বয়স প্রমাণের জন্য তারা এসএসসি সার্টিফিকেটের কপি নিয়ে আসে। তারপর বললাম, মেয়ের বাবা কোথায়? তারপর বলল, মেয়ের বাবা তো আসবে না। আমার মায়ের সঙ্গে কথা বলেন।

মেয়ের মায়ের সঙ্গে মুঠোফোনে কথা বললাম। তিনি বললেন, মেয়ের বাবা তো এখন বিয়ে মানবে না। পরে মানবে। আপনি বিয়ে পড়াইয়া দেন। এরপর আমি বিয়ে পড়াইয়া দেই।