বাংলাদেশ বেতারের বহির্বিশ্ব অনুষ্ঠান কার্যক্রমে হিন্দি, আরবী ও নেপালী ভাষার পাশাপাশি ৬ষ্ঠ ভাষা হিসেবে যুক্ত হতে যাচ্ছে চীনের ম্যান্ডারিন ভাষা। এ সংক্রান্ত একটি প্রস্তাবনা মন্ত্রণালয়ে প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

এছাড়া মন্ত্রণালয়েরই সিদ্ধান্তে বাতিল হয়েছে ১৯৭২ সাল থেকে চলা উর্দু ভাষার অনুষ্ঠান। বাংলাদেশ বেতারের বহির্বিশ্ব কার্যক্রম বিভাগের পরিচালক শাহানাজ বেগম সাউথ এশিয়ান মনিটরকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, অনুষ্ঠানমালায় সব ভাষাতেই থাকছে সংবাদ, সংবাদ পর্যালোচনা, গান, নাটক, ইতিহাস, ঐতিহ্য, উন্নয়ন, পর্যটন, খেলার মাঠ ও সাংস্কৃতিক অঙ্গনের খবর। এছাড়া স্বাধীনতার মাস, বিজয়ের মাস, ভাষার মাস ও শোকের মাসসহ বিশেষ দিবস নিয়ে অনুষ্ঠান প্রচার হচ্ছে।

ইংরেজি ও হিন্দি ভাষায় অনুষ্ঠান প্রচারের মাধ্যমে ১৯৭২ সালের পহেলা জানুয়ারি যাত্রা শুরু করে বাংলাদেশ বেতারের বহির্বিশ্ব কার্যক্রম। তবে স্বাধীনতার আগ থেকে বেতারে উর্দু ও নেপালী ভাষায় অনুষ্ঠান প্রচার হলেও তা পৃথক কোন কার্যক্রমের আওতায় ছিলনা। ১৯৭২ সালে বেতারের বহির্বিশ্ব কার্যক্রমে ইংরেজি ও হিন্দির সঙ্গে যুক্ত হয় উর্দু ও নেপালী ভাষা।

শুরুর দিকে এক ঘন্টা করে উর্দু ভাষায় অনুষ্ঠান প্রচার হলেও বন্ধ হওয়ার আগ পর্যন্ত রাত ৮টা থেকে ৮.৩০টা পর্যন্ত টার্গেট এরিয়া পাকিস্তানের জন্যে অনুষ্ঠান প্রচার করেছে বাংলাদেশ বেতার।

এছাড়া বর্তমানে বাংলাদেশে অবস্থানরত নেপালী শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে ৭.১৫টা থেকে ৭.৪৫টা পর্যন্ত টার্গেট এরিয়া নেপালের জন্যে অনুষ্ঠান প্রচার হচ্ছে।