দক্ষিণ কোরিয়ার কোম্পানি ব্লুহোল এর তৈরি করা অনলাইন গেম পাবজি (প্লেয়ারআননোনস ব্যাটেলগ্রাউন্ডস) বাংলাদেশে বন্ধ করার পর আবার খুলে দেওয়া হয়েছে। গেমটির মাধ্যমে তরুণেরা সহিংসতায় উদ্বুদ্ধ হতে পারে আশঙ্কায় গেমটি বন্ধ করা হয়েছিল। বন্ধের ফলে তরুণ-তরুণীদের কাছে জনপ্রিয় অনলাইন গেম পাবজি ইনস্টল করা যাচ্ছিল না।

পাবজি কেন নিষিদ্ধ করা হয়েছে এ বিষয়ে জানতে চাইলে ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার গণমাধ্যমকে বলেন, নিষিদ্ধ করা হয়ে ছিল, সেটা আবার খুলে দেওয়া হয়েছে। আমাদের ধারণা ছিল, এটি খুব ক্ষতিকর একটি বিষয়। পরে পর্যালোচনা করে দেখে ক্ষতিকারক এমন কোনো কিছু পাওয়া যায়নি। তাই খুলে দেওয়া হয়েছে।

এই গেইমে আসক্তি তৈরি হওয়ায় তরুণরা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে বলে অভিভাবকদের অভিযোগের প্রেক্ষিতে সেটি বন্ধ করার জন্য বিটিআরসিকে বলেছিল পুলিশের সাইবার সিকিউরিটি বিভাগ। তাদের আবেদনে গেইমটি ডাউনলোড করার সুযোগ বন্ধ করে দিয়েছিল বিটিআরসি।

পাবজি খেলেন, এমন কয়েকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, এই মাসের শুরু থেকে পাবজি খেলতে সমস্যা হচ্ছিল। অনলাইন ভিত্তিক ভিডিও গেমটি কয়েকজন মিলে খেলতে হয়।

উল্লেখ্য, সাম্প্রতিক সময়ে ভারত, নেপাল, চীনসহ কয়েকটি দেশে পাবজি গেমটি নিষিদ্ধ করা হয়েছে। ২০১৭ সালে চালু হওয়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী ১০ কোটির বেশিবার ডাউনলোড করা হয়েছে এই গেম।