গ্রাজুয়েটদের পদচারনায় মুখরিত জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়

0
112

আর তিনদিন পর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) ইতিহাসে প্রথম সমাবর্তন। সমাবর্তনকে ঘিরে গ্রাজুয়েটদের পদচারনায় মুখরিত পুরো ক্যাম্পাস ।সমাবর্তন উপলক্ষে গ্রাজুয়েটদের মাঝে উপহার সামগ্রী বিতরণ আজ থেকে শুরু হয়েছে। যার প্রভাব পরিলক্ষিত হচ্ছে পুরান ঢাকাতেও। সমাবর্তনের স্থান ধূপখোলা মাঠে নির্মাণ করা হচ্ছে ১ লক্ষ ৫০ হাজার বর্গফিটের বিশালাকৃতির প্যান্ডেল। যেখানে সমবেত হবেন প্রায় ১৯ হাজার গ্র্যাজুয়েট। সমাবর্তন সফল করতে ইতিমধ্যেই নানান উদ্যোগ গ্রহণ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন । প্রথম সমাবর্তনকে সামনে রেখে ইতিহাসের সাক্ষী হতে অপেক্ষমান বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ও বর্তমান শিক্ষার্থীরা।

জানা যায়, আজ মঙ্গলবার থেকে সমাবর্তনের গাউন ও উপহার সামগ্রী বিতরণ করা শুরু হয়েছে।সকাল থেকে বিশ^বিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগে প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা তাদের গাউন ও অন্যান্য সামগ্রী বিতরণ শুরু হয়।আগামী ৯ জানুয়ারি পর্যন্ত এই উপহার সামগ্রী বিতরণ চলবে।বিশ^বিদ্যালয় প্রশাসনের নির্দেশনা অনুযায়ী , সমাবর্তনে অংশগ্রহণকারী গ্র্যাজুয়েটরা ৭, ৮ ও ৯ জানুয়ারি অফিস চলাকালীন (সকাল আটটা থেকে বিকাল চারটা) সময়ে স্ব-স্ব বিভাগ হতে কস্টিউম, ব্যাগ ও গিফট সংগ্রহ করতে পারবেন। এছাড়াও গ্র্যাজুয়েটরা সমাবর্তনের দিন (১১ জানুয়ারি) বিকাল তিনটা থেকে রাত আটটা পর্যন্ত, ১২ জানুয়ারি ও ১৩ জানুয়ারি সকাল নয়টা থেকে বিকাল চারটা পর্যন্ত স্ব-স্ব বিভাগ হতে মূল সনদ গ্রহণ করবেন। উল্লেখিত তারিখের মধ্যে কেউ সনদ গ্রহণ করতে ব্যর্থ হলে পরবর্তীতে পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক দপ্তর থেকে মূল সনদ গ্রহণ করতে পারবে।

উল্লেখ্য, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম সমাবর্তনের নিবন্ধন কার্যক্রম শুরু হয় ১ মার্চ। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনে অনলাইনে নিবন্ধন কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন ভিসি অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমান। নিবন্ধন কার্যক্রম ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত চলার কথা থাকলেও যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে আরোও কিছু সময় বাড়ানো হয়। এবারের সমাবর্তনে বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার পর থেকে ২০১২-২০১৩ শিক্ষাবর্ষ পর্যন্ত স্নাতক, স্নাতকোত্তর, এমফিল, পিএইচডি ও সান্ধ্যকালীন ডিগ্রিধারী শিক্ষার্থীরা যারা অন্তত একটি ডিগ্রি জবি থেকে অর্জন করেছে তারাই অংশগ্রহণ করছে। তবে সমাবর্তনে একজন শিক্ষার্থী কেবল একটি সনদের জন্য রেজিস্ট্রেশন করতে পেরেছেন। বর্তমান নিয়ম অনুযায়ী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে একাধিক ডিগ্রি অর্জনকারীরা সমাবর্তনের পর ডিগ্রির সনদ তুলতে পারবেন। সমাবর্তনে অংশগ্রহণকারীদের বিশ্ববিদ্যালয় থেকে দেয়া সমাবর্তন গাউন শিক্ষার্থীদের ফেরত দিতে হচ্ছে না।