ঢাবি ছাত্রী ধর্ষণ: গবিতে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ মিছিল

0
79

রাজধানীর কুর্মিটোলায় ধর্ষণের শিকার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ২য় বর্ষের শিক্ষার্থীর ধর্ষণের বিচারের দাবিতে এবং সারাদেশে অনিয়ন্ত্রিতভাবে বেড়ে যাওয়া ধর্ষণের প্রতিবাদে মানববন্ধন এবং বিক্ষোভ মিছিল কর্মসূচি পালন করেছে সাভারের গণ বিশ্ববিদ্যালয়।

মঙ্গলবার (৭ জানুয়ারি) দুপুরে গণ বিশ্ববিদ্যালয় সাধারণ ছাত্র পরিষদ এবং সাধারণ শিক্ষার্থীবৃন্দ এই কর্মসূচি পালন করে।

মানবন্ধনের শুরুতে বক্তব্য রাখেন সাধারন ছাত্র পরিষদের আহ্বায়ক রনি আহমেদ, তিনি বলেন ধর্ষণের মিছলে নির্যাতিত নারীর সংখ্যা বেড়েই চলেছে। একের পর এক ধর্ষণে নারী সমাজ আজ ভয়াবহ বিপদের সম্মুখীন। এভাবে যদি ধর্ষণ চলতে থাকে তাহলে ধর্ষণ এক সময় মহামারী আকারে রূপ নিবে। চুপ করে আর বসে থাকা নয় শিক্ষার্থীদের এখন থেকেই নারী সমাজ রক্ষার দায়িত্বে কাঁধে তুলে নিতে হবে। ধর্ষণের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে। প্রতিবাদ, সংগ্রাম গড়ে তুলতে হবে।

উচ্চ স্লোগানের মধ্য দিয়ে শুরু হওয়া বিক্ষেভ মিছিল থেকে ধর্ষকদের কালো হাত ভেঙে দাও গুড়িয়ে দাও,আমার সোনার বাংলায় ধর্ষকদের ঠাই নাই, আমার বোন ধর্ষিত কেন প্রাশাসন জবাব চাই ইত্যাদি প্রতিবাদী স্লোগান দেওয়া হয়।

একপর্যায়ে বক্তব্য রাখেন সাধারণত ছাত্র পরিষদ এর যুগ্ন আহ্বায়ক মাহবুবর রহমান রনি তিনি বলেন, বর্তমান পরিস্থিতিতে নারীরা কোথাও নিরাপদ নয়
কারন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়এর মত জায়গা যখন এই ধরনের ন্যাক্যার জনক ঘটনা ঘটতে পারে তবে তাহলে গ্রামের প্যত্যন্ত অঞ্চলের স্কুল কলেজ গুলতে কি ধনের ঘটনা ঘটছে, এজন্য আমাদের সকলকে উচিত সকলে মিলে একসাথে এই ধনের ধর্ষনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ এবং সচেতনতা বৃদ্ধি করতে হবে।

মানববন্ধন চালাকালে সাধারণ শিক্ষার্থী এবং গণ বিশ্ববিদ্যালয় সাধারন ছাত্র পরিষদের সাথে যোগ দেন গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মীর মর্ত্তুজা আলী বাবু। এ সময় তিনি প্রতিবাদ মিছিল এবং মানববন্ধন কর্মসূচিকে সমর্থন জানিয়ে বলেন বিশ্ববিদ্যালয় মুক্তচর্চার কেন্দ্র এখানে ছাত্র-ছাত্রী সবাই সবার প্রতি সহমর্মিতা দেখাবে, ছাত্র ছাত্রী মানে শুধু গণ বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র-ছাত্রী না। ছাত্র-ছাত্রী মানে সারা বাংলাদেশ না সারা পৃথিবীর ছাত্র-ছাত্রী এক এবং একতাবদ্ধ প্রতিটি দাবীর মধ্যেই একতা থাকতে হবে। ঢাবী ছাত্রী ধর্ষণের মতো ন্যক্কারজনক ঘটনার নিন্দা জানাই এবং এই ঘটনা যায় ঘটিয়েছে তাদের উপযুক্ত শাস্তি চাই।