হাবিপ্রবি শিক্ষার্থী তরিকুল নিখোঁজ, থানায় জিডি করলেন বাবা

0
63

দিনাজপুরের হাজী দানেশ বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের ইলেক্ট্রিকাল এন্ড ইলেক্ট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং (ইইই) বিভাগের লেভেল-১ সেমিস্টার-১ এর শিক্ষার্থী মো. তরিকুল ইসলাম গত বৃহস্পতিবার রাত থেকে নিখোঁজ হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এমনকি তার মোবাইলও বন্ধ পাওয়া যাচ্ছে।

এ ঘটনায় গতকালই বৃহস্পতিবার রাত ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন এবং তার পরিবার হতে দিনাজপুর কোতয়ালী থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড.মো.খালেদ হোসেন।ওই শিক্ষার্থী বাবার চাকুরীসূত্রে বিশ্ববিদ্যালয়ের কোয়ার্টারে থাকতেন। বাবা তাজুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্ল্যান্ট প্যাথলোজি বিভাগের একজন সিনিয়র ল্যাব টেকনিশিয়ান। নিখোঁজ তরিকুল ইসলাম সেতু এর গায়ের রং শ্যামলা, লম্বায় ৫ ফুট ৪/৫ ইঞ্চি, স্বাস্থ্য স্বাভাবিক এবং পড়নে ডোরাকাটা দাগের একটা সোয়েটার ছিলো বলে জানা গেছে।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার বিকালে ক্লাস শেষে দিনাজপুর শহরে যায় ঐ শিক্ষার্থী।সেখানে মার্কাজ মসজিদে মাগরিবের নামাজ পড়ে কিছুক্ষণ বয়ান শোনে সে। পরে সেখান থেকে বন্ধুর কাছ থেকে টাকা ধার নেয়। সর্বশেষ বাহাদুর বাজারসহ শহরের বেশ কয়েকটি স্থানে সময় কাটিয়েছে বলে জানা গেছে। এরপর থেকে তার আর কোন সন্ধান পাওয়া যায়নি।

এব্যাপারে প্রক্টর অধ্যাপক ড.মো.খালেদ হোসেন জানান, নিখোঁজের খবর পাওয়ার পরে কাল রাতেই দিনাজপুরের কোতয়ালি থানায় একটি জিডি করা হয়েছে।সর্বাত্মকভাবে আমরা চেষ্টা করে যাচ্ছি তাকে খুজে পাওয়ায়। পরিবারকেও খুঁজতে বলা হয়েছে।আপনারা কেউ তরিকুলের সন্ধান পেলে আমাদের বা নিকটস্থ থানায় ও জেলা প্রশাসনকে জানাবেন।

নিখোঁজ শিক্ষার্থী তরিকুল ইসলামের বাবা জানান, কাল থেকে আমার পরিচিত সকল আত্মীয়-স্বজন ও ব্যক্তিদের সাথে যোগাযোগ করেছি। কিন্তু এখন পর্যন্ত তার কোন খোঁজ পাইনি। সে কোথায় আছে কেমন আছে কিছু জানিনা। দয়া করে কেউ খোজ পেলে জানাবেন। বলতে বলতে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন তার বাবা।