জাপান-বাংলাদেশ আড়াইশ কোটি ডলারের উন্নয়ন সহায়তা চুক্তি

0
144

সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ লড়াইয়ের কথা পুনর্ব্যক্ত করেছে বাংলাদেশ ও জাপান। বুধবার (২৯ মে)
টোকিওতে দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও  জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে এই প্রত্যয়ের কথা ব্যক্ত করেন।

বৈঠকের পর শিনজো আবে ও শেখ হাসিনার উপস্থিতিতে বেশ কয়েকটি উন্নয়ন প্রকল্পে অর্থায়নের জন্য জাপানের সঙ্গে আড়াইশ কোটি ডলারের উন্নয়ন সহায়তা চুক্তি করেছে বাংলাদেশ সরকার।

চুক্তির পর যৌথ সাংবাদিক সম্মেলনে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী বলেন, “২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে উন্নত দেশের কাতারে নিয়ে যাওয়ার লক্ষ্য নির্ধারণ করেছি আমরা। এ লক্ষ্য পূরণে জাপান আমাদের পাশে থাকবে ও প্রয়োজনীয় সহযোগিতা করে যাবে বলে প্রধানমন্ত্রী আবে আমাকে নিশ্চিত করেছেন।”

এদিকে দ্বিপক্ষীয় আলোচনা শেষে বিকেলে টোকিওতে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে পররাষ্ট্র সচিব মোহাম্মদ শহীদুল হক এক ব্রিফিংয়ে বলেন, ‘দুই নেতা সন্ত্রাসবাদ ও সহিংস চরম পন্থার বিরুদ্ধে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেছেন।’ ব্রিফিংয়ে প্রধানমন্ত্রীর ভাষণের লেখক মো. নজরুল ইসলামও উপস্থিত ছিলেন।

পররাষ্ট্র সচিব জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বাংলাদেশ ও জাপান বিদ্যমান দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক একটি কৌশলগত পর্যায় নিয়ে যেতে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করবে।

প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশ থেকে দক্ষ জনশক্তি নেয়ার জন্য শিনজো আবের প্রতি আহ্বান জানান। এ প্রসঙ্গে তিনি দক্ষ জনশক্তি গড়ে তুলতে বাংলাদেশে একটি দক্ষতা উন্নয়ন ইনস্টিটিউট খোলারও প্রস্তাব দেন।

এ বিষয়ে ইতিবাচক জবাব দিয়ে শিনজো আবে বলেন, দুই দেশের কর্মকর্তারা এ ব্যাপারে আলোচনা করবেন। জাপানের প্রধানমন্ত্রী তৃতীয় মেয়াদে পুনঃনির্বাচিত হওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানান। তিনি শেখ হাসিনার সরকারের সঙ্গে কাজ করে যাওয়ার আগ্রহ ব্যক্ত করেন।

শেখ হাসিনা ২০২০-২১ সালে যে মুজিব বর্ষ উদযাপিত হতে যাচ্ছে তাতে যোগদানের জন্য জাপানের প্রধানমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ জানান। শিনজো আবে আমন্ত্রণ গ্রহণ করে বলেন, তিনি বিষয়টি ইতিবাচকভাবে বিবেচনা করবেন।