৩৪ বছর পর সুইডেনের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ওলোফ পামের খুনিকে শনাক্ত করার কথা জানিয়েছেন দেশটির কৌঁসুলিরা।

হাজারো মানুষের সাক্ষ্য নেয়ার পর ৩৪ বছর পর খুনিকে শনাক্ত করার কথা জানিয়েছেন সুইডেনের চিফ প্রসিকিউটর ক্রিস্টের পিটারসন। সাবেক প্রধানমন্ত্রীর মৃত্যু নিয়ে তদন্ত কার্যক্রম শেষেরও ঘোষণা দিয়েছেন তিনি।

১৯৮৬ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি রাতে স্ত্রী লিসবেত, ছেলে মার্টিন ও ছেলের বান্ধবীর সঙ্গে সিনেমা দেখতে গিয়েছিলেন সুইডেনের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী পাম।

সিনেমা শেষে স্ত্রীর সঙ্গে স্টকহোমের রাস্তায় হাঁটার সময় গুলিবিদ্ধ হয়েছিলেন ৫৯ বছর বয়সী এ রাজনীতিক; ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়েছিল।

সেদিন সিনেমা দেখতে যাওয়ার আগেই পাম তার নিরাপত্তায় নিয়োজিত কর্মীদের ছুটি দিয়ে দিয়েছিলেন। এই সুযোগে খুনি স্টকহোমের ব্যস্ত সড়কে প্রধানমন্ত্রীকে গুলি করে পালিয়ে যায়। ঘটনাস্থল থেকে .৩৫৭ ম্যাগনাম হ্যান্ডগানের কয়েকটি গুলি পাওয়া গেলেও শেষ পর্যন্ত হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত বন্দুকটির কোনো হদিশ মেলেনি