Photo Credit: NASA/ Twitter

চাঁদের মাটিতে খোঁজ মিলল চন্দ্রযান-২ এর ল্যান্ডার বিক্রমের ধ্বংসাবশেষের। মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা টুইট করে এই খবরের সত্যতা প্রকাশ করেছে। নাসা জানিয়েছে, তাদের উপগ্রহের এলআরও ক্যামেরায় বিক্রমের ধ্বংসাবশেষের ছবি ধরা পড়ছে।

এই ধ্বংসাবশেষ খুঁজে পাওয়ার পেছনে মূল কৃতিত্ব অবশ্য এক ভারতীয় প্রকৌশলীর। শানমুগা সুব্রামানিয়ান নামের সেই প্রকৌশলীই নাসার একটি ছবি গবেষণা করে প্রথম এই ধ্বংসাবশেষের অস্তিত্ব আবিষ্কার করেন। পরে তিনি বিষয়টি নাসাকে জানান। চন্দ্রযান-২ চন্দ্রপৃষ্ঠের যেখানে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়, সেখান থেকে ৭৫০ মিটার উত্তর-পূর্বে প্রথম ধ্বংসাবশেষের অস্তিত্ব ধরা পড়ে।

নাসা জানিয়েছে, সন্মুগা সুব্রহ্মণ্যম এলআরও প্রকল্পের সঙ্গে যোগাযোগের পরই বিভিন্ন ছবি খতিয়ে দেখে নিশ্চিত করা হয় যে চাঁদের মাটিতে পড়ে থাকা ওই ধ্বংসাবশেষ চন্দ্রযান-২ এর ল্যান্ডার বিক্রমের। বিক্রম ল্যান্ডার যেখানে ক্র্যাশ ল্যান্ড করেছিল তার উত্তর পশ্চিম দিকে একটা বড় উজ্জ্বল পিকসেল প্রথমে চিহ্নিত করেন সুব্রহ্মণ্যম। নভেম্বরে উপগ্রহ চিত্র দেখে দাবি মার্কিন গবেষণা সংস্থার।

এমন পর্যবেক্ষণের জন্য শানমুগাকে ধন্যবাদ জানাতে ভোলেনি নাসা। ই-মেইলে পাঠানো সেই ধন্যবাদবার্তা টুইটারে সবার সঙ্গে ভাগাভাগিও করে নিয়েছেন সেই ভারতীয় প্রকৌশলী।

গত ৭ সেপ্টেম্বর ভারত সফলভাবে চন্দ্রযান-২ উৎক্ষেপণ করে। চন্দ্রপৃষ্ঠ থেকে ২ দশমিক ১ কিলোমিটার দূর পর্যন্ত স্বাভাবিকভাবেই চলছিল ল্যান্ডার বিক্রমের অবতরণপ্রক্রিয়া। কিন্তু এরপরই হঠাৎ যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায় সেটি।