চীনের দক্ষিণাঞ্চলীয় ফুজিয়ান প্রদেশের কোয়ানঝো শহরে একটি হোটেল ধসে প্রায় ৭০ জন আটকা পড়েছেন। চীনের রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম জানায়, সিনজিয়া নামের ওই হোটেলটি করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের কোয়ারেনটাইন করে রাখার জন্য ব্যবহৃত হচ্ছিল।

বিবিসির খবরে বলা হয়, শনিবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে পাঁচতলা এই হোটেলটি ধসে পড়ে। তবে হতাহতের কোনো খবর মেলেনি। হোটেল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, এরই মধ্যে প্রায় ৩৫ জনকে ধ্বংসস্তূপ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। কী কারণে হোটেলটি ধসে পড়েছে, তা এখনো জানা যায়নি। ২০১৮ সালে চালু হওয়া হোটেলটিতে ৮০টি অতিথি কক্ষ রয়েছে।

ওয়েইবোতে মন্ত্রণালয়টির করা পোস্টের ভাষ্যানুযায়ী, উদ্ধারপ্রাপ্তদের মধ্যে ছয় জনের মৃত্যু হয়েছে, ৩৬ জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে এবং একজনকে প্রাথমিক চিকিৎসার পর ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। এখনো আরও ২৮ জনের খোঁজে উদ্ধারকাজ চালিয়ে যাওয়া হচ্ছে।

মাত্র দুই বছর আগে চালু হওয়া ওই হোটেলে অতিথিদের জন্য কক্ষ আছে মোট ৮০টি। ভবনটির প্রথম তলায় সংস্কার কাজ চলার সময় সেটি ধসে পড়ে বলে জানিয়েছে দেশটির রাষ্ট্রায়ত্ত সংবাদমাধ্যম সিনহুয়া।