দারুণ জয়ে বঙ্গবন্ধু বিপিএল শুরু করলো কুমিল্লা ওয়ারিয়র্স। আজ (বুধবার) দিনের দ্বিতীয় খেলায় রংপুর রেঞ্জার্সকে সহজেই হারিয়েছে তারা। দাসুন শানাকার ঝড়ো হাফসেঞ্চুরির পর বোলারদের চমৎকার পারফরম্যান্সে কুমিল্লা পেয়েছে ১০৫ রানের বড় জয়।

অধিনায়ক শানাকার হার মানা ঝড়ো ৭৫ রানে ভর দিয়ে নির্ধারিত ২০ ওভারে কুমিল্লা ৭ উইকেট হারিয়ে স্কোরে জমা করে ১৭৩ রান। এই লক্ষ্যে আল-আমিন হোসেন (৩/১৪), সানজামুল ইসলাম (২/৪) ও সৌম্য সরকারের (২/১২) দুর্দান্ত বোলিংয়ে ১৪ ওভারে মাত্র ৬৮ রানে গুটিয়ে যায় রংপুর।

টস জিতে ব্যাট করতে নেমে প্রথম বলেই কুমিল্লা হারায় ইয়াসির আলি চৌধুরিকে। ২৩ বলে ছয় ছক্কা ও দুই চারে পঞ্চাশ স্পর্শ করেন শানাকা। ছক্কা বৃষ্টি এরপরও থামেনি। জুনায়েদ খানের করা ইনিংসের শেষ ওভারে হাঁকান তিন ছক্কা ও এক চার। শেষ ২ ওভারে আসে ৪৯ রান। তিন রান অতিরিক্ত থেকে, ৪৬ রানই আসে শানাকার ব্যাট থেকে।

রান তাড়ায় আবু হায়দারকে দুই ছক্কা হাঁকিয়ে শুরু করলেও মোহাম্মদ শাহজাদ যেতে পারেননি বেশি দূর। ফজলে মাহমুদকে বোল্ড করার পর গ্রেগরিকে ফিরিয়ে হ্যাটট্রিকের সম্ভাবনা জাগান আল আমিন।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

কুমিল্লা ওয়ারিয়র্স: ২০ ওভারে ১৭৩/৭ (ইয়াসির ০, রাজাপাকসে ১৫, সৌম্য ২৬, মালান ২৫, সাব্বির ১৯, শানাকা ৭৫*, মাহিদুল ২, আবু হায়দার ৬, সানজামুল ০*; নবি ৩-০-১৪-১, জুনায়েদ ৪-০-৪৭-০, সঞ্জিত ৪-০-২৬-২, মুস্তাফিজ ৪-০-৩৭-২, তাসকিন ২-০-২৩-০, গ্রেগরি ৩-০-২৫-২)

রংপুর রেঞ্জার্স: ১৪ ওভারে ৬৮ (শাহজাদ ১৩, নাঈম ১৭, জহুরুল ৫, মাহমুদ ১, গ্রেগরি ০, নবি ১১, সঞ্জিত ০, জুনায়েদ ৩, তাসকিন ১, মুস্তাফিজ ৮*, জাকির আহত অনুপস্থিত; মুজিব ৩-০-৭-১, আবু হায়দার ২-০-১৯-১, আল আমিন ৩-০-১৪-৩, শানাকা ১-০-৬-০, সৌম্য ২-০-১২-২, সানজামুল ২-০-৪-২, সাব্বির ১-০-৪-০)

ফল: কুমিল্লা ওয়ারিয়র্স ১০৫ রানে জয়ী

ম্যান অব দা ম্যাচ: দাসুন শানাকা