আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (এসিবি) দুর্নীতি বিরোধী ধারা ভঙ্গের দায় স্বীকার করায় ব্যাটসম্যান শফিকউল্লাহকে ৬ বছরের জন্য সব ধরনের ক্রিকেট কার্যক্রম থেকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে অভিযোগের মধ্যে অন্যতম ছিল বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএলে) ম্যাচ পাতানোর চেষ্টা।

গত বিপিএলে সিলেট থান্ডারের হয়ে তিনটি ম্যাচ খেলেছিলেন শফিকউল্লাহ। এই দলকে ঘিরে বেশ কিছু সন্দেহজনক খবর বিপিএলের সময় বেরিয়েছিল সংবাদমাধ্যমে।

এসিবির দুর্নীতি দমন কর্মকর্তা সৈয়দ আনোয়ার শাহ কুরাইশি কিছুটা খোলাসা করেছেন শফিকউল্লাহর অপরাধের ধরণ।

“এটা খুবই গুরুতর অপরাধ, একজন সিনিয়র ক্রিকেটার ২০১৮ এপিএলের একটি হাই-প্রোফাইল ম্যাচে দুর্নীতিতে জড়িত ছিল। এই ক্রিকেটার ২০১৯ বিপিএলেও (২০১৯-২০) একটি হাই-প্রোফাইল ম্যাচে একজন সতীর্থকে দুর্নীতিতে জড়ানোর প্রস্তাব দিয়ে ব্যর্থ হন।”