ফিল সিমন্সকে পুনরায় কোচ হিসেবে নিয়োগ দিলো ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ড। পুনরায় নিয়োগের পর তিনি দায়িত্ব পালন করবেন ৪ বছর।

২০১৬ সালে ক্যারিবীয়দের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জেতালেও বিতর্কিতভাবে ছাঁটাই করা হয় ফিল সিমন্সকে। আগের বোর্ডের সভাপতি ডেভ ক্যামেরন কলকাঠি নেড়েছিলেন তখন। সিমন্স ক্ষুব্ধ হয়ে মামলাও করেছিলেন বোর্ডের বিরুদ্ধে। এই বছরে নতুন বোর্ড ক্ষমতায় আসলে নতুন মোড় নেয় তা। বোর্ড তার কাছে ক্ষমা চেয়ে আর অঘোষিত পরিমাণ অর্থ দিয়ে নিয়ন্ত্রণে আনে এই পরিস্থিতি।

গত বিশ্বকাপ পর্যন্ত আফগানিস্তানের প্রধান কোচ হিসেবে কাজ করেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাবেক ওপেনার সিমন্স। সদ্য সমাপ্ত সিপিএলে তার কোচিংয়ে শিরোপা জেতে বারবাডোজ ট্রাইডেন্টস। এর আগে ২০০৭ থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত আয়ারল্যান্ডের কোচ ছিলেন তিনি। এ সময় দেশটি টানা তিন বিশ্বকাপের বাছাইপর্ব পেরিয়ে খেলে মূল পর্বে।

ক্রিকেট ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রধান রিকি স্কেরিট জানান, কেবল অতীতের ভুল সংশোধনই নয়, সিমন্সকে তারা দেখেন ক্যারিবিয়ানদের কোচিং করানোর জন্য সঠিক সময়ে সঠিক ব্যক্তি হিসেবে।

কোচ হিসেবে তিন সদস্যের সংক্ষিপ্ত তালিকায় ফিল সিমন্স ছাড়াও ছিলেন রেইফার ও ডেসমন্ড হেইন্স। তার আগে ৬ জনের সাক্ষাৎকার নেয় ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ড। এ সময়ে নতুন নির্বাচক প্যানেলও ঘোষণা করেছে বোর্ড। প্রধান নির্বাচক হিসেবে দায়িত্ব নিচ্ছেন রজার হারপার।