Sakib Al hasan

জুয়াড়িদের কাছ থেকে আসা প্রস্তাব প্রত্যাখান করেছিলেন সাকিব আল হাসান, কিন্তু ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) কিংবা বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডকে (বিসিবি) বিষয়টি না জানানোয় তার বিরুদ্ধে অভিযোগ ওঠার কথা শোনা যাচ্ছে। অভিযোগ সত্য হলে বড় শাস্তির মুখে পড়তে হবে এই অলরাউন্ডারকে।

আইসিসির দুর্নীতি বিরোধী ধারা অনুযায়ী, কোনও জুয়াড়ির কাছ থেকে অনৈতিক কোনও প্রস্তাব পেলে যত দ্রুত সম্ভব আইসিসি বা সংশ্লিষ্ট বোর্ডকে জানাতে হয়। এ ব্যাপারে প্রতিটি সিরিজ ও টুর্নামেন্টের আগে ক্রিকেটারদের ক্লাস নেওয়া হয়।

এরপরও কেউ জুয়াড়িদের প্রস্তাবের কথা না জানালে গুরুতর অপরাধ হিসেবে সেটা গণ্য হবে। শাস্তিও তাই গুরুতর। আইসিসির এই ধারা ভঙ্গের শাস্তি হতে পারে ৬ মাস থেকে ৫ বছরের নিষেধাজ্ঞা।

বিসিবির এক শীর্ষ কর্তা দুপুরে জানালেন, সাকিবকে নিয়ে এখনো আইসিসি কিছুই জানায়নি। তাঁরা অপেক্ষায় আছেন আইসিসির সিদ্ধান্ত জানার। তবে সূত্র জানিয়েছে, আইসিসির অভিযোগ সম্পর্কে বিসিবিকে অবগত করেছেন সাকিব।

বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী জানিয়েছেন, তারা এ ব্যাপারে কিছুই জানেন না। তিনি শুধু বলেছেন, ‘আমরাও অপেক্ষায় আছি। দেখা যাক আইসিসি কী বলে।’