দিনের শুরুটা ছিল আলো ঝলমলে। প্রখর রোদে একে একে অনুশীলন করে বাংলাদেশ ও ভারত দল। বিকাল নাগাদ পাল্টে যায় পরিস্থিতি। ঘন কালো মেঘে ঢেকে যায় রাজকোটের আকাশ। সন্ধ্যায় শুরু হয়েছে প্রবল বৃষ্টি। তাতে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টির ভেন্যু যেন ভেসে যাওয়ার যোগাড়।

গত দুদিন ঝড়ের কোনো প্রভাব না থাকলেও সন্ধ্যা থেকে রাজকোটে শুরু হয়েছে মুষলধারে বৃষ্টি। সৌরাষ্ট্র ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের সেক্রেটারি অবশ্য বারবার বলছিলেন, ম্যাচের আগে ঝড় অনেক দুর্বল হয়ে যাবে। বৃষ্টির তীব্রতাও হয়তো কমে যাবে। কিন্তু আজ সন্ধ্যায় ঝড় ভালোই ভীতি ছড়াল সৌরাষ্ট্র ক্রিকেট স্টেডিয়ামে। প্রেসবক্সের পাশেই শোনা গেল গ্লাস ভেঙে পড়ার শব্দ ।

ভারতের আবহাওয়া অফিসের তথ্যমতে, রাজকোট থেকে প্রায় ১০০ কিলোমিটারের কিছু বেশি দূরে গুজরাট উপকূলে বৃহস্পতিবার সকালে সাইক্লোন মাহা আঘাত হানবে। তার প্রভাবে ভারি বর্ষণ হবে রাজকোটেও।

কিন্তু বুধবার বিকেলে আবহাওয়ার পূর্বাভাসে জানানো হয়, মাহার আঘাত হানার সম্ভাবনা কমে যাচ্ছে। দুর্বল হয়ে বৃহস্পতিবার আরব সাগরে বিলীন হয়ে যেতে পারে। কেবল থাকবে নিম্নচাপ। ধারণা করা হচ্ছে, বুধবার সন্ধায় যে প্রবল বৃষ্টিপাত শুরু হয়েছে রাজকোটে, তা সেই নিম্নচাপের প্রভাবে।

দলের সঙ্গে ভারত সফরে আসা বিসিবির প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল অবশ্য বলছিলেন, ম্যাচের সময় বৃষ্টির সম্ভাবনা কম। আর মাঠের পানি নিষ্কাশন ব্যবস্থাও খুব উন্নত। তাঁর আশা ম্যাচটা ঠিকঠাক হয়ে যাবে।