বিদেশি খেলোয়াড় ক্যাটাগরির লটারিতে প্রথম ডাকের সুযোগ পায় চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। সেই সুযোগে ক্রিস গেইলকে দলে নেয় বঙ্গবন্ধু বিপিএলের নতুন এই ফ্র্যাঞ্চাইজি। কিন্তু হঠাৎই গেইল বলে বসেন, বিপিএলের ড্রাফটে কিভাবে নাম এলো, তা তিনি জানেন না! নাটকীয় এই পরিস্থিতি পরিষ্কার করে চট্টগ্রামের স্পন্সর প্রতিষ্ঠান জানিয়েছে, গেইল আসবেন বিপিএলে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক কেএম রিফাতুজ্জামান নিশ্চিত করেছেন বিষয়টি, ‘তার (গেইল) বিপিএল খেলা নিয়ে কোনও সংশয় নেই। চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের জার্সিতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীর বিশেষ বিপিএল মাতাবেন ক্যারিবিয়ান ব্যাটিং কিংবদন্তি ক্রিস গেইল।’

“তার বিপিএল খেলা নিয়ে সংশয় নেই। ক্রিস গেইলের হ্যামস্ট্রিংয়ে হালকা চোট আছে। পুরোপুরি ফিট হয়ে মাঠে ফিরতে কিছুটা সময় লাগবে। তবে, বিপিএল খেলার ব্যাপারে তার কখনও আপত্তি ছিল না। আমরা হয়তো পুরো বিপিএলে গেইলকে পাব না। কিন্তু পরের দিকে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের জার্সিতে মাঠ মাতাবেন এই ব্যাটিং জিনিয়াস।”

দক্ষিণ আফ্রিকার লিগ শেষে যদিও গেইল নিজে চোটের কথা বলেননি। স্রেফ বলেছিলেন, এই বছরের বাকি সময়টায় ক্রিকেট থেকে বিরতি নিচ্ছেন। চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের সংবাদ বিজ্ঞপ্তি থেকে যা ইঙ্গিত মিলছে, তাতে সত্যিই হয়তো এই বছর আর মাঠে ফিরছেন না গেইল। এবারের বিপিএলের সিলেট পর্ব ও ঢাকায় শেষ পর্ব হবে আগামী বছরের শুরুর দিকে। ‘পরের দিকে’ বলতে হয়তো সেই অংশকেই বোঝানো হয়েছে।

দেশি-বিদেশি মিলিয়ে বিপিএলে সবচেয়ে সফল ব্যাটসম্যান গেইল। টুর্নামেন্টের সবচেয়ে বেশি সেঞ্চুরি, সবচেয়ে কম বলে সেঞ্চুরি, সবচেয়ে কম বলে ফিফটি- এমন দারুণ সব রেকর্ড এই বাঁহাতি ওপেনারের দখলে।