Photo Credit: BCCI/ twitter

ঝড়ের পূর্বাভাস ছিল। একে হারের ক্ষত, এর ওপর হাসেনি তার ব্যাট। রোহিত শর্মা গর্জে উঠলেন বঙ্গোপসাগরের কোলঘেঁষা বিশাখাপত্তনমে। হতাশা কাটানো সেঞ্চুরিতে রাঙালেন সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডে। ওপেনিং সঙ্গী লোকেশ রাহুলও শতক পূর্ণ করায় ভারত পেয়ে যায় বিশাল সংগ্রহ। ৩৮৭ রানের সেই পাহাড় আর ‍টপকাতে পারেনি ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ১০৭ রানের জয়ে ভারত সমতা ফিরিয়েছে সিরিজে।

টস জিতে বোলিংয়ে নামা ক্যারিবিয়ানদের প্রথম উইকেটের দেখা পেতেই লেগে যায় ৩৭ ওভার। রোহিত ও রাহুল গড়েন ২২৭ রানের জুটি।

১৩৮ বলে ১৫৯ রানের ইনিংস খেলেন রোহিত। ওয়ানডেতে অষ্টম দেড়শ ছোঁয়া ইনিংসে নিজের রেকর্ড সংহত করেছেন আরও। রাহুল করেন তৃতীয় ওয়ানডে সেঞ্চুরি। শেষ দিকে তাণ্ডব চালান রিশাভ পান্ত ও শ্রেয়াস আইয়ার।

চেন্নাইয়ের প্রথম ওয়ানডে হার দিয়ে শুরু হয় ভারতের। সিরিজে টিকে থাকতে বিশাখাপত্তনমে জয়ের বিকল্প ছিল না। ভুল করেনি স্বাগতিকরা। আজ (বুধবার) রোহিত-রাহুলের সেঞ্চুরির পর বোলারদের চমৎকার পারফরম্যান্সে দুর্দান্ত জয় তুলে নিয়েছে বিরাট কোহলিরা।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

ভারত: ৫০ ওভারে ৩৮৭/৫ (রোহিত ১৫৯, রাহুল ১০২, কোহলি ০, শ্রেয়াস ৫৩, পান্ত ৩৯, কেদার ১৬*, জাদেজা ০*; কটরেল ৯-০-৮৩-২, হোল্ডার ৯-০-৪৫-০, পিয়ের ৯-০-৬২-০, পল ৭-০-৫৭-১, জোসেফ ৯-১-৬৮-১, চেইস ৫-০-৪৮-০, পোলার্ড ২-০-২০-১)।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ: ৪৩.৩ ওভারে ২৮০ (লুইস ৩০, হোপ ৭৮, হেটমায়ার ৪, চেইস ৪, পুরান ৭৫, পোলার্ড ০, হোল্ডার ১১, পল ৪৬, জোসেফ ০, পিয়ের ২১, কটরেল ০*; চাহার ৭-১-৪৪-০, শার্দুল ৮-০-৫৫-১, শামি ৭.৩-০-৩৯-৩, জাদেজা ১০-০-৭৪-২, কুলদীপ ১০-০-৫২-৩, ১-০-১৩-০)।

ফল: ভারত ১০৭ রানে জয়ী

সিরিজ: ৩ ম্যাচ সিরিজে ১-১ সমতা

ম্যান অব দা ম্যাচ: রোহিত শর্মা