জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ‍উপলক্ষ্যে বছর জুড়েই নানা আয়োজন থাকছে। এরই অংশ হিসেবে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) এশিয়া একাদশ ও বিশ্ব একাদশ নিয়ে দুটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ আয়োজন করতে যাচ্ছে।

প্রাথমিক অবস্থায় বাংলাদেশসহ এশিয়ার বাকি তিনটি দেশ ভারত, পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটারদের নিয়েই এশিয়া একাদশের দল গড়ার কথা ছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত পাকিস্তানি খেলোয়াড়দের বাদ দিয়েই দুটি ম্যাচ আয়োজন করবে বিসিবি!

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আইএএনএসের খবর, ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে যে উত্তপ্ত সম্পর্ক চলছে, তাতে এ দুই দেশের মধ্যে যেকোনো একটি দেশের খেলোয়াড় নিয়ে এশিয়া একাদশ গড়া হলে অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না। আইএনএসের এমন ধারণার পেছনে কাজ করছে বিসিসিআইয়ের যুগ্ম সচিব জয়েশ জর্জের একটি মন্তব্য।

তিনিই জানিয়েছেন, বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে অনুষ্ঠেয় প্রীতি ম্যাচ দুটিতে কোনো পাকিস্তানি ক্রিকেটারকে আমন্ত্রণ জানানো হবে না।

তাঁর কথা, ‘এশিয়া একাদশে কোনো পাকিস্তানি ক্রিকেটার থাকবেন না, এটাই জানি পেয়েছি আমরা। আর তাই দুই দেশের ক্রিকেটাররা একসঙ্গে খেলবেন, এমন কোনো সম্ভাবনা নেই। আর এশিয়া একাদশে (ভারত থেকে) কোন পাঁচ ক্রিকেটার থাকবেন, তা ঠিক করবেন সৌরভ গাঙ্গুলী।’

সমস্যাটা বেঁধেছে মূলত পাকিস্তানের বোর্ড সভাপতি এহসান মানির মন্তেব্যের কারণে। চলতি সপ্তাহের শুরুর দিকে পিসিবির চেয়ারম্যান ভারতের চেয়েও পাকিস্তানকে নিরাপদ বলে দাবি করেন। এর কয়েকদিন পর বৃহস্পতিবার তার শোধ নিলো ভারত!