Photo Credit: cricket.com.au/twitter

স্টিভেন স্মিথ আর ডেভিড ওয়ার্নারের অস্ট্রেলিয়া বিপজ্জনক- এমন সতর্কবার্তা বিরাট কোহলিরা শুনেছেন কয়েক সপ্তাহ ধরে। তার প্রমাণ তারা পেলেন প্রথম ওয়ানডেতে।

স্মিথের সুযোগ না হলেও ওয়ার্নার দুর্দান্ত ব্যাটিং করেন, তাকে সঙ্গ দেন অ্যারন ফিঞ্চ। দুই ওপেনারের অসাধারণ ব্যাটিংয়ে ১৫ বছর পর দেশের মাটিতে ১০ উইকেটে হারের তেতো স্বাদ পেয়েছে ভারত।

মুম্বাইয়ে মঙ্গলবার টস হেরে ব্যাটিংয়ে নামা ভারত এক পর্যায়ে সম্ভাবনা জাগিয়েছিল বড় স্কোরের। কিন্তু মাঝের ওভারগুলোতে দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়ায় অস্ট্রেলিয়ান বোলিং। ভারত অলআউট হয় ২৫৫ রানে।

রান তাড়ায় ফিঞ্চ ও ওয়ার্নার পাত্তাই দেননি ভারতকে। অস্ট্রেলিয়ার দুই ওপেনারই দলকে জিতিয়ে দিয়েছেন ৭৪ বল বাকি রেখে। দুজনই সেঞ্চুরি করে দলের জয় সঙ্গে নিয়ে ফিরেছেন।

১৭ চার ও ৩ ছক্কায় ১১২ বলে ১২৮ রান করে অপরাজিত থাকেন ওয়ার্নার। ম্যাচের সেরাও তিনিই। অধিনায়ক ফিঞ্চ অপরাজিত থাকেন ১১৪ বলে ১১০ রানে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

ভারত: ৪৯.১ ওভারে ২৫৫ (রোহিত ১০, ধাওয়ান ৭৪, রাহুল ৪৭, কোহলি ১৬, শ্রেয়াস ৪, পান্ত ২৮, জাদেজা ২৫, শার্দুল ১৩, শামি ১০, কুলদীপ ১৭, বুমরাহ ০*; স্টার্ক ১০-০-৫৬-৩, কামিন্স ১০-১-৪৪-২, রিচার্ডসন ৯.১-০-৪৩-২, জ্যাম্পা ১০-০-৫৩-১, অ্যাগার ১০-১-৫৬-১)।

অস্ট্রেলিয়া: ৩৭.৪ ওভারে ২৫৮/০ (ওয়ার্নার ১২৮*, ফিঞ্চ ১১০*; শামি ৭.৪-০-৫৮-০, বুমরাহ ৭-০-৫০-০, শার্দুল ৫-০-৪৩-০, কুলদীপ ১০-০-৫৫-০, জাদেজা ৮-০-৪১-০)।

ফল: অস্ট্রেলিয়া ১০ উইকেটে জয়ী

সিরিজ: ৩ ম্যাচ সিরিজে অস্ট্রেলিয়া ১-০তে এগিয়ে

ম্যান অব দা ম্যাচ: ডেভিড ওয়ার্নার