আনুষ্ঠানিকভাবে পাকিস্তানের নাগরিক হয়ে গেলেন ড্যারেন স্যামি। ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাবেক এই অধিনায়ক পাকিস্তানের নাগরিকত্ব চেয়েছিলেন। রোববার ইসলামাবাদে নাগরিকত্বের সর্বোচ্চ বেসামরিক অ্যাওয়ার্ড দিয়ে সম্মানিত করা হয়েছে তাকে।

পাকিস্তানের মাটিতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফেরানোর ক্ষেত্রে অসামান্য অবদান রেখে চলেছেন স্যামি। এমন একজন উপকারী বন্ধু নাগরিকত্ব চাইলেন, আর সেটা নাকচ করে দেবে পাকিস্তান, তা কি হয়!

পাকিস্তানের নাগরিকত্ব পেয়ে উচ্ছ্বসিত স্যামি টুইট করেছেন, ‘আমি এই বেসামরিক পুরস্কার পেয়ে সম্মানিত বোধ করছি। ২০১৭ সালে আমরা সঠিক পথে ছোট একটা পদক্ষেপ নিয়েছিলাম, আজ এখানটা দেখুন। বিদেশি সব খেলোয়াড় এখানে খেলছে। ধন্যবাদ পাকিস্তান আমাদের প্রতি এমন ভালোবাসা দেখানোয়। আমরা শুধু চেয়েছি তোমাদের ঘরের মাঠে ক্রিকেটটা ফিরুক। ভালোবাসা জিতেছে।’

পাকিস্তান সুপার লিগে (পিএসএল) পেশোয়ার জালমির অধিনায়কত্ব করেন স্যামি। সে দলের হয়ে খেলতে গিয়েই পড়েছেন দেশটির প্রেমে। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের জন্য বুভুক্ষু দেশটির প্রতি তাঁর ভালোবাসা দেখে জালমির মালিক জাভেদ আফ্রিদি স্যামির নাগরিকত্বের আবেদন করেছিলেন।