ম্যাকডোনাল্ডসের তিন নারীর একজনের খোঁজ মিলেছে, যারা ছোটবেলার ক্ষুধার্ত ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো ও আরও কয়েকজনকে ফ্রি বার্গার দিতেন। কয়েক দিন আগে এক সাক্ষাৎকারে তাদের খুঁজে পাওয়ার আকুতি জানান পাঁচবারের ব্যালন ডি’অর জয়ী।

এই সপ্তাহে আইটিভিতে প্রচারিত পিয়ার্স মরগানের সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে জুভেন্টাস সুপারস্টার বলেন, ‘আমরা বেশ ক্ষুধার্ত থাকতাম। স্টেডিয়ামের কিছুটা পরেই ছিল ম্যানডোনাল্ডসের দোকান। আমরা দরজায় কড়া নেড়ে জানতে চাইতাম অবিক্রিত কোনও বার্গার আছে কিনা। এদনা নামের একজন সবসময় থাকতেন, তার সঙ্গে আরও দুজন মেয়ে। আমি আর কখনও খুঁজে পাইনি তাদের।’

এরপরেই শুক্রবার ওই সময়ে ম্যাকডোনাল্ডসে ক্যাশিয়ার হিসেবে কাজ করা পাওলো লেসা নামের এই নারীকে খুঁজে পাওয়ার কথা জানায় পর্তুগিজ রেডিওটি।

পাওলো লেসা বলেন, “তারা কাউন্টারের সামনে আসতো আর হ্যামবার্গার অবিক্রিত থাকলে সেগুলো তাদের দেওয়ার অনুমতি ম্যানেজার আমাদের দিয়েছিল।”

“তাদের একজন ছিল ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো, সে হয়তো সবার মধ্যে বেশি শান্ত ছিল। সপ্তাহে প্রায় প্রতি রাতেই তারা আসতো। মনে পড়লে এখনও আমার হাসি পায়। আমি আমার ছেলেকে এ কথা বলেছি কিন্তু সে ভাবে আমি বানিয়ে বলছি। কারণ সে হয়তো কল্পনাই করতে পারছে না যে তার মা ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোকে হ্যামবার্গার দিয়েছিল। আমার স্বামী এটা জানে কারণ সে রাতে আমাকে মাঝে মধ্যে আনতে যেতো তখন সেও তাকে দেখেছে।”