করোনায় প্রাণহানি ২৪ লাখ ৪১ হাজার ছুঁইছুঁই

0
9

নভেল করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় সারা পৃথিবীতে আরো সাড়ে ১২ হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে নতুন করে ৪ লক্ষাধিক মানুষের শরীরে ভাইরাসটির সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে এই বৈশ্বিক মহামারীতে মৃতের সংখ্যা ২৪ লাখ ৪১ হাজার ছুঁইছুঁই। সরকারি হিসেবে, মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১১ কোটি সোয়া ৪ লাখ ছাড়াল।

পরিসংখ্যানভিত্তিক ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটার’র তথ্য মতে, আজ ১৮ ফেব্রুয়ারি, বৃহস্পতিবার সকাল পৌনে ৯টা পর্যন্ত সারা পৃথিবীতে করোনায় আক্রান্ত বেড়ে ১১ কোটি ৪ লাখ ২৯ হাজার ৯৮০ জনে দাঁড়িয়েছে। এদের মধ্যে ২৪ লাখ ৪০ হাজার ৯২৮ জন ইতোমধ্যে মৃত্যুবরণ করেছেন। বিপরীতে সুস্থ হয়েছেন ৮ কোটি ৫৩ লাখ ২৪ হাজার ২৩৬ জন করোনারোগী। বর্তমানে চিকিৎসাধীন আছেন ২ কোটি ২৬ লাখ ৬৪ হাজার ৮১৬ জন আক্রান্ত, যাদের মধ্যে ৯৬ হাজার ২২ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে এখন পর্যন্ত পৃথিবীর সর্বোচ্চ ২ কোটি ৮৪ লাখ ৫৩ হাজার ৫২৬ জনের শরীরে করোনার সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। ভারতে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১ কোটি ৯ লাখ ৪৯ হাজার ৫৪৬ জনের শরীরে ভাইরাসটি শনাক্ত হয়েছে। ব্রাজিলে তৃতীয় সর্বোচ্চ ৯৯ লাখ ৭৯ হাজার ২৭৬ জনের শরীরে ধরা পড়েছে কোভিড-১৯। এছাড়া রাশিয়ায় চতুর্থ সর্বোচ্চ ৪১ লাখ ১২ হাজার ১৫১ জন ও যুক্তরাজ্যে পঞ্চম সর্বোচ্চ ৪০ লাখ ৭১ হাজার ১৮৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

শীর্ষ দশে থাকা অন্য দেশগুলো হলো—ফ্রান্স (৩৫ লাখ ১৪ হাজার ১৪৭ জন), স্পেন (৩১ লাখ ৭ হাজার ১৭২ জন), ইতালি (২৭ লাখ ৫১ হাজার ৬৫৭ জন), তুরস্ক (২৬ লাখ ৯ হাজার ৩৫৯ জন) ও জার্মানি (২৩ লাখ ৬২ হাজার ৩৬৪ জন)।

কোভিড-১৯ মহামারীতে মৃতের হিসেবে সকল দেশের শীর্ষে থাকা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে মোট মৃত্যু বেড়ে ৫ লাখ ২ হাজার ৫৪৪ জনে দাঁড়িয়েছে। দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ব্রাজিলে ২ লাখ ৪২ হাজার ১৭৮ জন মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন। মেক্সিকোতে মারা গেছেন তৃতীয় সর্বোচ্চ ১ লাখ ৭৭ হাজার ৬১ জন। এছাড়া ভারতে চতুর্থ সর্বোচ্চ ১ লাখ ৫৬ হাজার ৩৮ জন ও যুক্তরাজ্যে পঞ্চম সর্বোচ্চ ১ লাখ ১৮ হাজার ৯৩৩ জনের প্রাণ কেড়েছে করোনা।

এ হিসেবে শীর্ষ দশে রয়েছে—ইতালি (মৃত্যু ৯৪ হাজার ৫৪০ জন), ফ্রান্স (মৃত্যু ৮৩ হাজার ১২২ জন), রাশিয়া (মৃত্যু ৮১ হাজার ৪৪৬ জন), জার্মানি (৬৭ হাজার ৭৪ জন) ও স্পেন (মৃত্যু ৬৬ হাজার ৩১৬ জন)।

এছাড়া ইরানে ৫৯ হাজার ১৮৪ জন (১১তম), কলম্বিয়ায় ৫৮ হাজার ১৩৪ জন (১২তম), আর্জেন্টিনায় ৫০ হাজার ৬১৬ জন (১৩তম), দক্ষিণ আফ্রিকায় ৪৮ হাজার ৪৭৮ জন (১৪তম), পেরুতে ৪৪ হাজার ৩০৮ জন (১৫তম), পোল্যান্ডে ৪১ হাজার ৩০৮ জন (১৬তম), ইন্দোনেশিয়ায় ৩৩ হাজার ৭৮৮ জন (১৭তম), তুরস্কে ২৭ হাজার ৭৩৮ জন (১৮তম), ইউক্রেনে ২৪ হাজার ৬৮৯ জন (১৯তম) ও বেলজিয়ামে ২১ হাজার ৭৫০ জন (২০তম) করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন।