আরাফাতের ময়দানে আজ ধ্বনিত হবে ‘লাব্বাইক আল্লাহুম্মা লাব্বাইক, লাব্বাইকা লা শারিকা লাকা লাব্বাইক, ইন্নাল হাম্দা ওয়ান নি’মাতা লাকা ওয়াল মুল্ক, লা শারিকা লাক’। অর্থাৎ আমি হাজির, হে আল্লাহ আমি হাজির, তোমার কোনো শরিক নেই, সব প্রশংসা ও নিয়ামত শুধু তোমারই, সব সাম্রাজ্যও তোমার।

সৌদি আরবের মিনায় মাত্র এক হাজার মুসলিমকে নিয়ে পবিত্র হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়েছে গতকাল বুধবার। আজ বৃহস্পতিবার পবিত্র হজ। পবিত্র কাবা শরিফ থেকে ৭ কিলোমিটার দূরে মিনায় এ বছর আড়াই লাখ তাঁবু টাঙানো হলেও করোনা মহামারির কারণে এ বছর কেবল সৌদিতে অবস্থানকারীরাই হজের সুযোগ পাচ্ছেন। খবর আরব নিউজের। অন্য দেশ থেকে আসা কেউ হজের আনুষ্ঠানিকতায় যোগ দিতে এলেই তাদের গ্রেফতার করা হচ্ছে। গতকাল ২৪৪ জনকে গ্রেফতার করে হজে নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা পুলিশ।

দীর্ঘ ৯০ বছরের ইতিহাসে এই প্রথম সৌদি আরবের বাইরের কোনো দেশ থেকে হজে অংশ নিতে পারছেন না কেউ। করোনাভাইরাসের কারণে এ নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। এ বছর ১০ হাজার হজযাত্রীর অনুমোদন থাকলেও বুধবার মিনার মাঠে এক হাজার মুসলিম শুরু করেন পবিত্র হজের আনুষ্ঠানিকতা।

গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় তারা পবিত্র মক্কা নগরী থেকে পাড়ি জমান মিনায়। মিনার খিমায় (তাঁবু) তাদের সবাই একত্রে কাটান। বুধবার সারা দিনে তারা এখানে পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ আদায় করবেন। আজ ফজরের নামাজ শেষে তারা মিনা থেকে যাবেন আরাফাতের ময়দানে।

আরফার ময়দানই হলো হজের মূল কার্যক্রম। এবারের হজে হাজীদের সব খরচ দিচ্ছে সৌদি আরব সরকার। হজের দ্বিতীয় দিন আরাফাত ময়দানের খুতবা বাংলাসহ ১০ ভাষায় অনূদিত হবে।