কিশোরগঞ্জের ঐতিহ্যবাহী শোলাকিয়া ঈদগাহ মাঠে আগামীকাল সকাল সাড়ে ৮টায় ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হবে। এবারের ১৯২তম ঈদুল আজহার জামাতে ইমামতি করবেন মাওলানা হিফজুর রহমান খান।

ইতোমধ্যে শেষ হয়েছে মাঠের সব প্রস্তুতি। দূরের মুসল্লিদের যাতায়াতের সুবিধার জন্য থাকছে দুটি বিশেষ ট্রেন।ঈদের জামাত নির্বিঘ্ন করতে নেওয়া হয়েছে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা। নিরাপত্তা বলয়ে প্রথম বারের মতো থাকছে স্নাইপার, ড্রোন ক্যামেরাসহ অত্যাধুনিক সরঞ্জাম।

কিশোরগঞ্জ শহরের পূর্বপাশে নরসুন্দা নদীর তীরে প্রায় ছয় একর জমির ওপর ঐতিহাসিক শোলাকিয়া ঈদগাহের অবস্থান। প্রায় ২৫০ বছরের পুরনো এ ঈদগাহ প্রতিষ্ঠা করেন শহরের হয়বতনগরের তৎকালীন জমিদার বাড়ির লোকজন।

প্রসঙ্গত ১৮২৮ সালে নরসুন্দা নদীর তীরে প্রায় সাত একর জমিতে স্থানীয় সাহেববাড়ির সৈয়দ আহমদের (র.) ইমামতিতে ঈদের প্রথম জামাত অনুষ্ঠিত হয়। প্রায় সোয়া লাখ মুসল্লি ওই ঈদের জামাতে অংশ নিয়েছিল। আর সে কারণেই বর্তমানে এ মাঠের নামকরণ হয় ‘শোলাকিয়া’।