‘সর্বশেষ হিসাব অনুযায়ী, বাংলাদেশের জনসংখ্যা ১৬ কোটি ৬৫ লাখ। সামাজিক অনেক সূচকে দেশের উল্লেখযোগ্য উন্নতি হয়েছে। এছাড়া দেশের মানুষের প্রত্যাশিত গড় আয়ুও বেড়েছে। ২০১৯ সালের হিসাবে প্রত্যাশিত আয়ুষ্কাল ৭২ দশমিক ৬ বছর, যা ২০১৮ সালে ছিল ৭২ দশমিক ৩ বছর।’— বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর (বিবিএস) ‘রিপোর্ট অন বাংলাদেশ স্যাম্পল ভাইটাল স্ট্যাটিস্টিকস-২০১৯’ প্রতিবেদনে এসব তথ্য উঠে এসেছে।

সাম্প্রতিক বছরগুলোতে বাংলাদেশের মানুষের প্রত্যাশিত গড় আয়ু ধারাবাহিকভাবেই বাড়ছে। শিশুমৃত্যুর হার কমে আসায় এবং দেশে জটিল রোগের চিকিৎসার সুযোগ বৃদ্ধি পাওয়াকে এর অন্যতম কারণ বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞরা।

প্রতিবেদনে আরও উল্লেখ করা হয়, ২০১৯ সালের জুলাই পর্যন্ত দেশের মোট জনসংখ্যা ১৬ কোটি ৬৫ লাখ। তার মধ্যে পুরুষ আট কোটি ৩৩ লাখ ৩০ হাজার এবং নারী আট কোটি ৩১ লাখ ৭০ হাজার।

২০১৫ সালে দেশের মোট জনসংখ্যা ছিল ১৫ কোটি ৮৯ লাখ, ২০১৬-তে ১৬ কোটি আট লাখ, ২০১৭-তে ১৬ কোটি ২৭ লাখ, ২০১৮-তে ১৬ কোটি ৪৬ লাখ। পাঁচ বছর ধরে জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার একই রয়েছে- ১ দশমিক ৩৭ শতাংশ। সে হিসাবে পাঁচ বছরের দেশে জনসংখ্যা বেড়েছে ৭৬ লাখ।

মনিটরিং দ্যা সিচুয়েশন অব ভাইটাল স্টাটিস্টিক অব বাংলাদেশ (এমএসভিএসবি) তৃতীয় পর্যায় প্রকল্পের আওতায় সারাদেশের ২ হাজার ১২টি নমুনা এলাকা থেকে তথ্য সংগ্রহ করে প্রতিবেদনটি তৈরি করা হয়েছে।