অল্প সময়েই ফর্সা ত্বক হওয়ার একমাত্র টোটকা

ত্বক উজ্জ্বল এবং প্রাণবন্ত হয়ে উঠুক, এমনটা সবাই চায়! তাহলে ত্বকের পরিচর্যায় মুসুর ডালকে কাজে লাগাতে ভুলবেন না যেন! এই ডালে উপস্থিত প্রোটিন, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, কার্বোহাইড্রেড, ডায়াটারি ফাইবার, ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড, ভিটামিন এ, সি, ই, কে এবং থিয়েমিন নানাভাবে শরীরের উপকার করে। সেই সঙ্গে ত্বকের অন্দরে উপস্থিত ক্ষতিকর উপাদানদের বের করে দিয়ে স্কিনকে সুন্দর করে তুলতেও বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে।

যেভাবে ব্যবহার করবেন

এক্ষেত্রে ৫০ গ্রাম মুসুর ডালকে সারা রাত পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। পরদিন সকালে পানি ছেঁকে ডাল বেটে নিন। তারপর ডালের পেস্টটির সঙ্গে এক চামচ কাঁচা দুধ এবং পরিমাণ মতো বাদাম তেল মিশিয়ে নিতে হবে। তারপর পেস্টটি ভাল করে মুখে লাগিয়ে কম করে ১৫ থেকে ২০ মিনিট অপেক্ষা করতে হবে। সময় হয়ে গেলে উষ্ণ গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফলুন মুখ। এভাবে প্রতিদিন ত্বকের পরিচর্যা করলে দেখবেন ত্বকের সৌন্দর্য বৃদ্ধি পেতে সময় লাগবে না।

জানেন কি? ফেস ওয়াশ হিসেবেও কাজ করে মসুর ডাল

অনেকেই বিভিন্ন ব্র্যান্ডের ফেস ওয়াশ প্রতিদিন ব্যবহার করেই থাকেন! তবে মসুর ডালকে কাজে লাগিয়ে যদি ত্বককে পরিষ্কার করা যায়, তাহলে স্কিন টোনের উন্নতি তো ঘটেই। সেই সঙ্গে পরিবেশ দূষণের কারণে ত্বকের কোনো ধরনের ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কাও কমে।

এক্ষেত্রে এক চামচ মুসুর ডালের পাউডারের সঙ্গে ২ চামচ দুধ, অল্প পরিমাণে হলুদ এবং ৩ ড্রপ নারকেল তেল মিশিয়ে একটা পেস্ট বানিয়ে নিতে হবে। তারপর মিশ্রণটি সারা মুখে লাগিয়ে কয়েক মিনিট অপেক্ষা করতে হবে। সময় হলে ভাল করে ধুয়ে ফলতে হবে মুখটা। সূত্র: বোল্ডস্কাই