সিলেটে পুলিশ ফাঁড়িতে নির্যাতনে রায়হান আহমদের মৃত্যুর ঘটনায় সাময়িক বহিষ্কৃত কনস্টেবল টিটু চন্দ্র দাসের ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত। আজ মঙ্গলবার সিএমএম-১ এর অতিরিক্ত চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মো. জিয়াদুল ইসলামের আদালত এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন। বিষয়টি আদালতের বেঞ্চ সহকারি আইয়ূব আলী নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, বিকেল ৩টার দিকে টিটু চন্দ্র দাসকে আদালতে হাজির করে পিআইবি। পরে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মফিদুল ইসলাম আদালতে তার সাতদিনের রিমান্ড আবেদন করলে বিচারক পাঁচদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এর আগে সোমবার বিকেলে সিলেটের অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতের বিচারক মো. জিয়াদুর রহমানের আদালতে প্রত্যক্ষদর্শী সাক্ষী হিসেবে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেন তিন পুলিশ সদস্য। পরে মঙ্গলবার দুপুর আড়াইটার দিকে পুলিশ লাইন থেকে টিটুকে গ্রেফতার করে পিআইবি।

গত ১১ অক্টোবর ভোরে পুলিশ ফাঁড়িতে নির্যাতন করে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পর রায়হানের মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় কোতোয়ালি থানায় হত্যা মামলা করেন নিহতের স্ত্রী তাহমিনা আক্তার তান্নি। এরপর বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই আকবর হোসেন ভূঁইয়াসহ চার পুলিশ সদস্যকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। একই সঙ্গে তিন পুলিশ সদস্যকে প্রত্যাহার করা হয়।

মামলাটি পুলিশ সদর দফতরের নির্দেশে পিবিআইতে স্থানান্তর হয়। তদন্তভার পাওয়ার পর পিবিআইর টিম ঘটনাস্থল বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়ি, নগরীর কাস্টঘর, নিহতের বাড়ি পরিদর্শন করে। মঙ্গলবার সিলেট থেকে টিটু চন্দ্রকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।