বাংলাদেশ ব্যাংকের নামে ইমেইলে ভুয়া চিঠি, বিভ্রান্ত না হওয়ার আহ্বান

0
24
Bangladesh Bank

বাংলাদেশ ব্যাংকের একজন মহাব্যবস্থাপকের নাম ব্যবহার করে বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের ইমেইলে ভুয়া চিঠি দিয়েছে একটি অসাধু চক্র। চিঠিতে ‘বাংলাদেশ অডিট ইন্টেলিজেন্স ইউনিট’ নামে একটি বিভাগের কথা উল্লেখ করে বিভিন্ন তথ্য চাওয়া হয়েছে। সেখানে একটি লিংক দিয়ে তাতে ক্লিক করতে বলা হয়েছে। অথচ এই নামে কোনো বিভাগ বাংলাদেশ ব্যাংকে নেই। আর ওই লিঙ্ক বা ইমেইলে পাঠানো চিঠিতে কেউ ক্লিক করলে তার অ্যাকাউন্ট হ্যাক হতে পারে। এ বিষয়ে সবাইকে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

চিঠির শেষভাবে আদেশক্রমে আবুল কালাম আজাদ, মহাব্যবস্থাপক অডিট ইন্টেলিজেন্স ইউনিট, বাংলাদেশ ব্যাংক, প্রধান কার্যালয় কথাটি লেখা আছে। সেখানে একটি ইমেইল ঠিকানাও দেওয়া হয়েছে। নাম-ঠিকানায় উল্লেখিত আবুল কালাম আজাদ বাংলাদেশ ব্যাংকের সহকারী মুখপাত্র ও ডিপার্টমেন্ট অব কমিউনিকেশন্স অ্যান্ড পাবলিকেশন্স বিভাগের মহাব্যবস্থাপক (জিএম)। তার নাম ঠিকানা ও ইমেইল ব্যবহার করে গণমাধ্যমে বিভিন্ন তথ্য পাঠায় কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

জানতে চাইলে আবুল কালাম আজাদ বলেন, কে বা কারা কোন উদ্দেশ্যে এটা করেছে তিনি অবগত নন। তবে এটা ভুয়া ও বানোয়াট। এতে কাউকে প্রতারিত না হওয়ার পরামর্শ দেওয়া হলো। এছাড়া এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য এরই মধ্যে বাংলাদেশ ফাইন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিটকে (বিএফআইইউ) জানানো হয়েছে।

ভুয়া এই চিঠিতে বলা হয়েছে, সম্প্রতি করা ব্যাংকিং অডিটে লক্ষ্য করা গেছে, আপনি বাংলাদেশের ব্যাংকিং চ্যানেল ব্যবহার করে অবৈধ লেনদেন করেছেন। যার কতিপয় চিহ্নিত লেনদেন নিচে উল্লেখ করা হলো। যার জন্য বাংলাদেশের ব্যাংকিং চ্যানেল মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। বাংলাদেশ মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ আইন-২০১২ অনুযায়ী যা শাস্তিযোগ্য অপরাধ। এরপর একটি লিংক দিয়ে সেখানে ক্লিক অবৈধ লেনদেনের তথ্য জানতে বলা হয়েছে। আর এই ইমেইল পাওয়ার সাতদিনের মধ্যে এ বিষয়ে কেউ জবাব না দিলে দোষ স্বীকার করে নেওয়া হয়েছে বিবেচনা করে ফৌজদারি অপরাধ হিসেবে মামলা করার কথা বলা হয়েছে।