ভারতীয় সিনেমাঙ্গনে আরও একটি নক্ষত্রের পতন। দীর্ঘদিন ধরে ব্রেন টিউমারের সঙ্গে লড়াই করে বৃহস্পতিবার (১৫ অক্টোবর) সকালে চলে গেলেন ভারতীয় সিনেমা ভুবনের প্রথম অস্কারজয়ী কস্টিউম ডিজাইনার ভানু আথাইয়া।

১৯৮২ সালে রিচার্ড অ্যাটেনবারো পরিচালিত ‘গান্ধী’ চলচ্চিত্রে সেরা পোশাক ডিজাইনার হিসেবে অস্কার জিতেছিলেন তিনি। তিনি ছিলেন অস্কার জয় করা ভারতের প্রথম কোনো নারী শিল্পী।

পঞ্চাশের দশক থেকে প্রায় ১০০টিরও বেশি ছবিতে কাজ করা ভানু কেরিয়ারের গোড়াতেই গুরু দত্তের টিমে যোগ দেন। ‘সিআইডি’ ছিল তাঁর প্রথম ছবি। এর পরে একে একে ‘পিয়াসা’, ‘কাগজ কে ফুল’, ‘সাহেব বিবি অওর গুলাম’, ‘তিসরি মঞ্জিল’, -এ তাঁর কাজ নজর কাড়তে শুরু করে।

নার্গিস তাঁর কাজ পছন্দ করতেন ব্যক্তিগত ভাবে। ‘গাইড’-এ ওয়াহিদা রহমান, ‘সত্যম শিবম সুন্দরম’-এ জ়িনাত আমন কিংবা ‘আম্রপালী’-তে বৈজয়ন্তীমালা তাঁর পোশাকেই অমর হয়ে রয়েছেন পর্দায়। দু’বার জাতীয় পুরস্কারও পেয়েছেন ভানু, ‘লেকিন’ ও ‘লগান’ ছবির জন্য।

‘গাঁধী’ ছবির জন্য প্রথম অস্কারজয়ী ভারতীয় হিসেবে নজির সৃষ্টি করেন শিল্পী। হিন্দি ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে কস্টিউম বিভাগের উপেক্ষিত হওয়ার কথা ধরা পড়েছিল তাঁর কলমে। বিদেশ থেকে কেনা পোশাক দিয়ে কস্টিউ‌ম ডিজ়াইন করার বিরোধিতা করেছেন ভানু তাঁর ‘দি আর্ট অব কস্টিউম ডিজ়াইন’ বইতে। ছবিতে তাঁর শেষ কাজ ছিল ‘স্বদেশ’।