মিয়ানমারে নারীদের ‘লুঙ্গি ব্যারিকেড’

0
3

মিয়ানমারে সেনা শাসনের বিরুদ্ধে চলমান বিক্ষোভে অভিনব এক পন্থা অবলম্বন করছেন বিক্ষোভকারীরা। সড়কে সড়কে দেশটির ঐতিহ্যবাহী পোশাক নারীদের লুঙ্গি ঝুলিয়ে ব্যারিকেড দিচ্ছেন তারা।

মিয়ানমারে নারীর পোশাকের নিচ দিয়ে পুরুষদের হাঁটা অশুভ হিসেবে বিবেচিত হয়। যেহেতু সেনা এবং পুলিশদের অধিকাংশ পুরুষ তাই তাদের ঠেকাতে নারীদের লুঙ্গি ঝুলিয়ে দিচ্ছেন বিক্ষোভকারীরা। খবর রয়টার্সের

বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে এবং মারতে পুলিশ যেন আসতে না পারে সেটা ঠেকাতে অভিনব এই পন্থা। নারীদের লুঙ্গির পাশাপাশি অন্তর্বাসও টানিয়ে দিচ্ছেন বিক্ষোভকারীরা।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ২০ বছর বয়সী একজন বিক্ষোভকারী রয়টার্সকে বলেন, আমাদের প্রচলিত বিশ্বাস নারীর পোশাকের নিচ দিয়ে হেঁটে যাওয়া অশুভ লক্ষণ। তরুণ প্রজন্ম এটিকে আর বিশ্বাস করে না। তবে সৈন্যরা এখনও তা করে এবং এটি তাদের দুর্বলতা। তাই তাদের ঠেকাতে এই পন্থা। জরুরি পরিস্থিতিতে যদি তারা আমাদের মারতে আসে তাহলে আমরা পালানোর বেশি সময় পাবো।

সম্প্রতি মিয়ানমারের বেশ কয়েকটি সড়কে নারীদের অন্তর্বাস ও লুঙ্গি ঝুলিয়ে রাখতে দেখা গেছে। নারীদের স্কার্ট ও পাজামাসহ রংবেরঙের নানা পোশাকও দেখা গেছে সড়কে ঝুলানো।

কিছু সেনা নারীদের লুঙ্গি স্পর্শ করতেও নারাজ। কারণ তাদের আশঙ্কা এর ফলে হয়তো তাদের সম্মুখ সারিতে থাকার সুযোগ নষ্ট হয়ে যাবে।

ইয়াঙ্গুনের সান চাউং শহরতলির সড়কে লুঙ্গি ঝুলিয়ে রাখার কয়েকটি ছবি ফেসবুকে পোস্ট করা হয়েছে। এতে দেখা গেছে সেনারা ট্রাকের ওপর দাঁড়িয়ে লুঙ্গি সরাচ্ছেন। কিছু কিছু লুঙ্গিতে জান্তা প্রধান জেনারেল মিন অং হ্লাইংয়ের ছবি আঁকা হয়েছে।