১৪৮ বছরের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো ইংরেজি ভাষা ব্যতীত অন্য ভাষার (হিন্দি) সিনেমা ‘বাহুবলী : দ্য বিগিনিং’ প্রদর্শিত হয়েছে লন্ডনের বিখ্যাত ‘রয়েল আলবার্ট হল’-এ। এর আগে হলটিতে ইংরেজি ভাষা ব্যতীত অন্য কোনো ভাষার ছবি কখনো প্রদর্শিত হয়নি।

রয়েল আলবার্ট হল হচ্ছে লন্ডনের একটি বিখ্যাত দাতব্য কনসার্ট হল। ১৮৭১ সালে ইংল্যান্ডের রাণী কুইন ভিক্টোরিয়া এই কনসার্ট হলটি উদ্বোধন করেন। ইংল্যান্ডের সংস্কৃতির অনেক কিছুকে প্রতিনিধিত্ব করে এই হল। প্রতি বছর প্রায় চারশর বেশি অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। এটি একটি বেসরকারি কনসার্ট হল। হলটিতে পাঁচ হাজার এর বেশি আসন রয়েছে।

‘বাহুবলী: দ্য বিগিনিং’-এর বিশেষ স্ক্রিনিং উপলক্ষে রয়্যাল অ্যালবার্ট হলে উপস্থিত ছিলেন ছবির পরিচালক রাজামৌলি, অভিনেতা প্রভাস-রানা দাগ্গুবতী, অভিনেত্রী আনুশকা শেঠি। বিদেশের মাটিতে ভারতের শিল্পের এমন কদর দেখে আপ্লুত হয়ে পড়েন তাঁরা।

ভারতে সর্বাধিক ব্যবসা করা ১০টি সিনেমার তালিকায় আছে বাহুবলী। ২০১৫ সালে মুক্তি পাওয়া ছবিটি প্রায় ৬৫০ কোটি টাকার ব্যবসা করেছিল। বিদেশের মাটিতেও জনপ্রিয়তার নিরিখে শীর্ষে ছিল বাহুবলী। এই ছবির দ্বিতীয় পার্ট ‘বাহুবলী ২’ও সুপার ডুপার হিট।

২০১৫ সালে বাহুবলীর একটি পোস্টার ভারতের কেরালায় কোচিতে প্রকাশিত হয়। সিনেমার নির্মাতাদের দাবি, এটিই পৃথিবীর বৃহত্তম চলচ্চিত্রের পোস্টার।

প্রায় ২০০ একর জমির ওপর এ ছবির সেট তৈরি করতে সময় লেগেছে দুইশ দিন। পুরো ছবিটি নির্মিত হয়েছে তিন বছর ধরে। ছবির শুটিং শুধু ভারতের হায়দরাবাদেই নয় ভারতের বাইরে বুলগেরিয়ার পর্বতে, ভারতের মহাবালেশ্বের জঙ্গলেও হয়েছে।