SHARE
Picture Credit- hindustantimes.com

মুম্বাইয়ের ‘ফিল্ম সিটি’তে সকাল থেকেই সালমান খান শুটিং করছিলেন পরবর্তী ছবি ‘রেস-৩’র। শুটিং চলাকালীনই সালমানের নিরাপত্তাকর্মীরা সন্ধান পান, বেশ কয়েকজন অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তি শুটিং সেটের মধ্যে ঢুকে পড়েছে। তাদের কাছে নাকি আগ্নেয়াস্ত্রও রয়েছে ।

খবর পেয়েই শ্যুটিংস্পটে পৌঁছায় পুলিশ ।সালমান এবং ‘রেস-৩’র প্রযোজক রমেশ তৌরানীকে শিগ্গির শ্যুটিং বন্ধের নির্দেশ দেন ।

এরপর ছয়জন পুলিশকর্মী অতিদ্রুত সালমানকে তার বান্দ্রার বাসায় পৌঁছে দেয়। সেটে পুলিশ পৌঁছনোর পর সেই অজ্ঞাত পরিচয় ব্যক্তিদের কোনও খোঁজ পাওয়া যায়নি।

নিরাপত্তা ব্যবস্থার মধ্যেও শুটিং সেটে তারা কীভাবে ঢুকল এবং পরে কোথায় তারা গা ঢাকা দিল সেই বিষয়েও পুলিশ নিশ্চিত করে কিছু জানায়নি।

নিরাপত্তারক্ষী ছাড়া সালমানকে সাইকেলে করে যত্রতত্র ঘুরে বেড়াতে নিষেধ করা হয়েছে । তার অবস্থান নিয়েও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কিছু না জানাতে অনুরোধ করেছে পুলিশ ।

গত ৪জানুয়ারি পাঞ্জাবের কুখ্যাত অপরাধী লরেন্স বিষ্ণোই যোধপুরের আদালত চত্বরেই সালমানকে প্রাণে মারার হুমকি দেয়।

Picture Credit- hindustantimes.com

পুলিশের অনুমান, সালমানের সঙ্গে লরেন্সের বিরোধের সূত্রপাত ১৯৯৮ সালে কৃষ্ণসার হত্যার ঘটনাকে কেন্দ্র করে।

রাজস্থানের বিষ্ণোই সম্প্রদায়ের মানুষ কৃষ্ণসার হরিণকে পূজা করে। এর সঙ্গে তাদের ধর্মীয় ভাবাবেগ জড়িয়ে রয়েছে। সেইকারণেই এই হুমকি এবং পরবর্তীতে শুটিং সেটে হামলার চেষ্টা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here