অবশেষে সব গার্মেন্ট কারখানা বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে তৈরি পোশাক মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ। বৃহস্পতিবার (২৬ মার্চ) সংগঠনটির সভাপতি রুবানা হক গার্মেন্ট মালিকদের কাছে সব কারখানা বন্ধের অনুরোধ জানিয়ে চিঠি লিখেছেন।

বিজিএমইএ সভাপতির লেখা চিঠিতে বলা হয়, প্রধানমন্ত্রী সবাইকে সুনির্দিষ্ট দিকনির্দেশনা দিয়েছেন। সবার সুরক্ষা এবং সু-স্বাস্থ্যের জন্য কিছু সচেতনতামূলক পদক্ষেপ নিতে বলেছেন। প্রধানমন্ত্রীকে অনুসরণ করে সর্ববৃহৎ শিল্প হিসেবে আমাদের দৃষ্টান্ত স্থাপন করা উচিত। এমতাবস্থায় কারখানা বন্ধ করে দেওয়া জরুরি বলেও অভিমত ব্যক্ত করেছেন রুবানা হক।

এদিকে নির্দেশনা না দিলেও করোনার কারণে বিজিএমইএর সদস্য ৩৮টি কারখানা বন্ধ করে হয়েছে। তাদের মধ্যেই অধিকাংশ আবার শ্রম আইনের ১২ ও ১৬ ধারা অনুযায়ী কারখানা লে-অফ করেছে। তাতে কারখানা বন্ধকালীন সময়ে শ্রমিকেরা মূল মজুরির অর্ধেক ও বাড়ি ভাড়া পাবেন।