Image Source: ICC/Twitter

পবিত্র রমজান মাসেই শুরু হয়েছে বিশ্বকাপ। বাংলাদেশ নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচ খেলবে (সম্ভাব্য) ঈদের দিন। কিন্তু আসরে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ছিল রোজা।

বিদেশ সফররত অবস্থায় রোজা পালনে সীমাবদ্ধতার সুযোগ থাকলেও বাংলাদেশ দলের তিন ক্রিকেটার মুশফিক, রিয়াদ ও মিরাজ এদিন রোজা রেখেই খেলেছেন ম্যাচ।

ম্যাচগুলো খেলতেও হচ্ছে ইউরোপে, যেখানে রোজা থাকতে হয় ১৯ ঘণ্টার বেশি সময়। রোজা রেখে অনুশীলন, ম্যাচ খেলা শুধুই কঠিন নয়, শারীরিকভাবে নিজেকে ফিট রাখাও ভীষণ কঠিন।

কঠিন এ কাজটিই হাসিমুখে করে যাচ্ছেন মুশফিক, মাহমুদউল্লাহ ও মেহেদি হাসান মিরাজ। বাংলাদেশ দলের সব খেলোয়াড়ই ধর্মচর্চার ব্যাপারে ভীষণ সচেতন এবং মনোযোগী।

তবে অসুস্থ হয়ে পড়তে পারেন, নিজের শতভাগ দেওয়া কঠিন হতে পারে, প্রশ্ন উঠতে পারে আত্মনিবেদন নিয়ে—এ ভাবনায় দলের বেশির ভাগ খেলোয়াড় ম্যাচের দিন রোজা রাখা থেকে বিরত থাকেন।

কিন্তু মুশফিক-মাহমুদউল্লাহ-মিরাজ ব্যতিক্রম। যত কষ্ট হোক, রোজা তাঁরা থাকবেনই। শুধু তাই নয়, দলকেও তারা এদিন এনে দিয়েছেন জয়। দলের জয়ে এই তিন ক্রিকেটারেও ছিল বড় অবদান।