Image source: Cricket World Cup/twitter

এ বিশ্বকাপে নিজেদের নামের পাশ থেকে ‘চোকার’ ট্যাগ সরানোর ইচ্ছা জানিয়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। বিশ্বকাপে বারবার নক আউট পর্ব থেকে বাদ পড়ার কারণে লেগে যাওয়া ট্যাগ সরাতে অবশ্য ভিন্ন পন্থাই নিয়েছে দলটি।


এবার আর নক আউটে ওঠার ঝামেলাতেই যায়নি। বিশ্বকাপে এখনো পর্যন্ত একমাত্র আফগানিস্তানকে হারিয়েছে তারা। আফগানিস্তানের পর দ্বিতীয় দল হিসেবে বিশ্বকাপ থেকে বাদ পড়েছে তারা।

টস জিতে ব্যাট করতে নেমে পাকিস্তানকে ভালো শুরু এনে দেন ফখর জামান ও ইমাম-উল-হক। দলে ফেরা হারিস ক্রিজে গিয়েই শট খেলতে শুরু করেন।

শেষ ওভারে ফেরার আগে ৮৯ রান করেন বাঁহাতি এই ব্যাটসস্যান। তার ৫৯ বলের ইনিংস গড়া তিন ছক্কা ও নয় চারে।

পরাজয়ের ব্যবধানটা দক্ষিণ আফ্রিকার ম্যাচ জুড়ে দেখানো অসহায়ত্ব বোঝাতে পারছে না। ৩০৯ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ৯ উইকেটে ২৪৯ রানে থেমে পাকিস্তানের কাছে ৪৯ রানে হেরে গেছে দক্ষিণ আফ্রিকা।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

পাকিস্তান: ৫০ ওভারে ৩০৮/৭ (ইমাম ৪৪, ফখর ৪৪, বাবর ৬৯, হাফিজ ২০, সোহেল ৮৯, ইমাদ ২৩, ওয়াহাব ৪, সরফরাজ ২*, শাদাব ১*; রাবাদা ১০-০-৬৫-০, এনগিডি ৯-০-৬৪-৩, মরিস ৯-০-৬১-০, ফেলুকোয়ায়ো ৮-০-৪৯-১, তাহির ১০-০-৪১-২, মারক্রাম ৪-০-২২-১)

দক্ষিণ আফ্রিকা: ৫০ ওভারে ২৫৯/৯ (আমলা ২, ডি কক ৪৭, দু প্লেসি ৬৩, মারক্রাম ৭, ফন ডার ডাসেন ৩৬, মিলার ৩১, ফেলুকোয়ায়ো ৪৬*, মরিস ১৬, রাবাদা ৩, এনগিডি ১, তাহির ১*; হাফিজ ২-০-১১-০, আমির ১০-১-৪৯-২, আফ্রিদি ৮-০-৫৪-১, ওয়াসিম ১০-০-৪৮-০, ওয়াহাব ১০-০-৪৬-৩, শাদাব ১০-১-৫০-৩)

ফল: পাকিস্তান ৪৯ রানে জয়ী

ম্যান অব দা ম্যাচ: হারিস সোহেল