রামায়ণের কুম্ভকর্ণ ফিরে এলেন ৷ তবে বিশালদেহী রাক্ষস হয়ে নয় ৷ এক সুন্দরী হয়েই তাঁর আগমন হল ৷ ভোল পাল্টালেও স্বভাব পালটায়নি ৷ এখনও দিব্বি ঘুমকাতুরে ৷ কুম্ভকর্ণের মতোই এই সুন্দরী ৬ মাস ঘুমিয়ে কাটান ৷

২২ বছরের বেথ গোডিয়ার (Beth Goodier) যেন ‘লেডি কুম্ভকর্ণ’ ৷ তিনি একবার শুয়ে পড়লে ৬ মাসের আগে চোখ খোলেন না ৷ বহু চেষ্টা করেও তাঁকে জাগানো যায় না৷ বেথ গোডিয়া এক বিরল রোগে আক্রান্ত ৷ ক্লিন-লেভিন সিনড্রোম (Kleine-Levin Syndrome) নামেই পরিচিত এই রোগ ৷

একশ জনের মধ্যে একজন এই রোগে আক্রান্ত হন ৷ রোগীর এমনই অবস্থা হয় যে, দিনের পর দিন মাসের পর মাস সে ঘুমিয়ে থাকে ৷ দুচোখ জুড়ে নেমে আসে নিশ্চিন্তের ঘুম৷ সেই ঘুম ভাঙলেই রোগীর খিদে পায়৷ ঠিক যেমন রাবণের ভাই কুম্ভকর্ণ ৬ মাস ঘুমিয়ে প্রচুর খেতেন ৷

১৭ বছর বয়সে ঘুম রোগে আক্রান্ত হন বেথ ৷ হুঁশ ফিরলে প্রাত্যহিক কর্ম করা ও খেতে পারেন তিনি ৷ মাত্র ১৪ দিনের জন্য তার ঘুম ভাঙে৷ ঘুম রোগের কারণে লেখাপড়া ছাড়তে হয়েছে ৷

কারো সঙ্গে দেখা করতে পারেন না তিনি ৷ তবে ঘুমরোগী লেডি কুম্ভকর্ণের কিন্তু প্রেমিক রয়েছে ৷ তিনি প্রায়ই বেথকে দেখতে আসেন ৷ ঘুমিয়ে থাকা প্রেমিকা বেথের কাছে বসে থাকেন ৷ ৬ মাস পর পর যখন ঘুম ভাঙে সে সময় দুজনের কথা হয় ৷